| |

জামালপুরে জামাই মেলা শুরু

আপডেটঃ 12:36 am | March 22, 2017

Ad

মোঃ রিয়াজুর রহমান লাভলু ঃ জামালপুর সদর উপজেলার ঝাওলা গোপালপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শুরু হয়েছে ঐতিহ্যবাহী জামাই মেলা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে এলাকাবাসীর উদ্যোগে এ মেলার আয়োজন করা হয়।

এ মেলাকে কেন্দ্র করে দাওয়াত করা হয় ওই এলাকার প্রতিটি পরিবারের জামাইদের। ঘোড়াধাপ ইউনিয়ন পরিষদ সূত্র জানায়, এলাকাবাসীর উদ্যোগে প্রতি বছর বসানো হয় জামাই মেলা। জামালপুর সদর উপজেলা পূর্ব ৪ ইউনিয়নের শতাধিক গ্রামের প্রতিটি বাড়ি-বাড়ি এখন মেয়ে-জামাই নিয়ে চলছে উৎসবের আমেজ। বিশাল এলাকা জুড়ে বসা এ মেলায় গ্রামীন ঐতিহ্যের সবকিছুর সাথে কৃষকের প্রয়োজনীয় তৈজসপত্র, ফার্নিচার ছাড়াও ঐতিহ্যবাহী গোপালপুরের বিখ্যাত রকমের মিষ্টির পসরা ও নানা ধরনের প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিয়ে বসেছে দোকানীরা।

মেলার দর্শনার্থী মোঃ লিটন মিয়া বলেন, প্রতিবছরের ন্যায় ঝাওলা গোপালপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এবারও জামাই মেলা বসেছে। প্রতি বছরের চৈত্র মাসে এ মেলা শুরু করা হয়। মেলাকে ঘিরে পূর্ব জামালপুরের বাঁশচড়া, নরুন্দি, ইটাইল, ঘোড়াধাপ ইউনিয়নের ১২০ গ্রামে এখন চলছে উৎসবের আমেজ। এসব গ্রামের কৃষকরা মেলা উপলক্ষে নিমন্ত্রণ করে নিয়ে আসছে মেয়ে-জামাইকে। তাদের দেওয়া হচ্ছে নানা উপহার সামগ্রী। এ উৎসব আনন্দে শরিক হতে দূরে বিয়ে দেয়া মেয়ে আর জামাইরাও অপেক্ষায় থাকে কোনদিন জামাই মেলা শুরু হবে।

সদর উপজেলার ৭ নং ঘোাড়াধাপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দিন ইসলাম বলেন, প্রায় দুই’শ বছর আগে এই মেলার প্রচলন করেছিল এই অঞ্চলের বসবাসকারী সনাতনী হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা। ভারত বিভক্তির আগ পর্যন্ত বারুনি স্নান উপলক্ষে এখানে বসতো চৈত্র মেলা। মেলাকে ঘিরে হিন্দু-মুসলিম সকলেই মেতে উঠতো নানা উৎসব অনুষ্ঠানে। পরে জামাই মেলা হিসেবে পরিচিতি পায়। আবার অনেকে এই মেলাকে ইসলামী মেলা হিসেবেও অভিহিত করছে।
সৌদিআরব প্রবাসী জামাই মনির উদ্দিন বলেন, শশুর মেলা উপলক্ষে আমাকে নিমন্ত্রণ দিয়ে এনেছে। এ মেলায় আমি প্রতিবছরই আসি। মেলায় এসে ব্যাপক আনন্দ উল্লাস করছি।

ব্রেকিং নিউজঃ