| |

কলমাকান্দায় পাউবো ফল্ডোয়ারী বাঁধ ভেঙ্গে ৫ হাজার হেক্টর জমি পানিতে তলিয়ে গেছে

আপডেটঃ 12:30 am | April 03, 2017

Ad

রেজাউল করিম. কলমাকান্দা ॥ পার্শ্ববর্তী সুনামগঞ্জের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মিত ধর্মপাশা উপজেলার মধ্যনগর ইউনিয়নের ফল্ডোয়ারী বেরী বাধ ভেঙ্গে কলমাকান্দা উপজেলার সদর ইউনিয়ন ও রংছাতি ইউনিয়নের ৫ হাজার হেক্টর ইরি-বোরো ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। এ বাঁধ ভাঙ্গে গত রাতে।

হাজার হাজার মানুষ আপ্রান চেষ্টা করেও বাধ রক্ষা করতে পারেনি। উপজেলার সদর ইউনিয়নের চত্রংপুর, রঘুরামপুর, হরিণধরা, নওয়াগাও, রাজাপুর, নাগডরা, কালিহালা, বৈদ্যগাও, রংসিনপুর, নানীয়া, চারিকুমপাড়া, বিশরপাশা ও রংছাতি ইউনিয়নের কৃষ্টপুর, চৈতা, ডাইয়ারকান্দা, নলাপাড়া গ্রামের হাজার হাজার কৃষক পরিবারে কান্নার রোল পড়েছে। কৃষকরা মাথায় হাত দিয়ে চোখের জল ফেলাচ্ছে। হাজার হাজার কৃষক পরিবারে চরম হতাশা ও অসহায়ত্ব দেখা দিয়েছে।

কি করে যে তারা পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করবে তা ভেবে পাচ্ছে না। এলাকাবাসীর অভিযোগ পানি উন্নয়ন বোর্ডের চরম অবহেলা ও দুর্নীতির কারনেই ফল্ডোয়ারী বেরীবাঁধ ভেঙ্গে গিয়েছে। উলে¬খ্য গত কয়েকদিনের টানা বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলে গোড়াডোবা, ফল্ডোয়ারী বাধ ও পোগলা ইউনিয়নের ভাটিপাড়া গ্রামের বেরীবাধ হুমকির মুখে পড়েছিল। সরজমিন ঘুরে দেখা গেছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের চরম অবহেলা ও দুর্নীতির কারনে কলমাকান্দা উপজেলার পোগলা ইউনিয়নের ভাটিপাড়া বেরীবাধ ও গোড়াডুবা বাধ পাহাড়ী ঢলের পানির চাপে যে কোন মুহুর্তে ভেঙ্গে যাবে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

এলাকার হাজার হাজার কৃষক ভাটিপাড়া ও গোড়াডোবা বাধ রক্ষার জন্য আপ্রান চেষ্টা করছে। সীমান্তের লেংগুড়া বাঁধ ভেঙ্গে খারনৈ, কলমাকান্দা মেদী বিল পানিতে তলিয়ে গেছে। কলমাকান্দা সদর ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য বিশরপাশা লাকী সাহা প্রতিনিধি কে বলেন, ফোল্ডুয়ারী বাধ ভেঙ্গে যাওয়ায় সদর ইউনিয়নের বিশরপাশা, নানীয়া, চারিকুমপাড়া, নাগডরা, রংসিনপুর, রঘুরামপুর, চত্রংপুর, হরিণধরা, নওয়াগাও গ্রামের মানুষ এখন চোখের জল জড়িয়ে শান্তনা খুজছে।

এসব সাধারণ কৃষক পরিবারের সদস্যরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছে। সদর ইউনিয়নকে বন্যা দুর্গত এলাকা ঘোষনার জন্য সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট দাবী করছি।

ব্রেকিং নিউজঃ