| |

ঈশ্বরগঞ্জে চুরি সন্দেহে গাছের সাথে বেঁধে নলকূপ শ্রমিককে নির্যাতন

আপডেটঃ 8:53 pm | May 03, 2017

Ad

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে টাকা চুরির সন্দেহে এক নলকূল শ্রমিককে নির্যাতনের অভিযোগ ওঠেছে। তিন দিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন মারাত্মক আহত শ্রমকি জামাল উদ্দিন। বিষয়টি নিয়ে গত কাল বুধবার থানায় একটি মামলা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার মাইজবাগ ইউনিয়নের মাইজবাগ পাঁচপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে নলকূপ শ্রমকি জামাল উদ্দিনকে টাকা চুরির সন্দেহে প্রতিবেশী হুমায়ুন কবির (৪০) রাতের আধারে ঘর থকে ডেকে নিয়ে মারধর করে।

জামাল উদ্দিন জানান, গত রোববার দিবাগত রাতে প্রতিবেশী হুমায়ুন কবির তাকে ঘর থকে ডেকে নিয়ে যায়। তারপর হুমায়ুনের বাড়ির সামনে একটি গাছের সাথে বেঁধে মারধর শুরু করে। এসময় আল-আমিন (২৫), আশিক(২৬), মাসুদ(৩৫), আজহারুল(৩০) ও হানিফ(২৩) নামের আরো কয়েকজন মিলে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় এলোপাথারি মারধর শুরু করে।

কেউ গলায় শুকনো বাঁশ দিয়ে ছেপে ধরে, কেউ কিল ঘুষি দিতে থাকে, কেউ গাছের ডাল ভেঙ্গে বাইরাইতে থাকে। থেমে থেমে প্রায় ঘন্টা খানেক নির্যাতনের পর মারা যাওয়ার আশঙ্কায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি তখন হাটতে পারছিরেন না।

এমতাবস্থায় খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। বিষয়টি নিয়ে জামাল উদ্দিন বাদি হয়ে থানায় একটি এজহার দায়ের করেছেন।

হুমায়ুন কবির জানান, জামাল উদ্দিন তার ঘরে থাকা ৪৪হাজার ৫শ টাকা চুরি করেছে বলে লোকজনের সাথে স্বীকার করলে উত্তেজিত লোকজন তাকে মারধর করেছে। তিনি জামালকে মারধর করেননি।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বদরুল আলম খান জানান, মারধরের ঘটনায় মামলা হয়েছে আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ব্রেকিং নিউজঃ