| |

বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমী‘র দোয়া ও ইফতার মাহফিলে এড. জহিরুল হক খোকা বঙ্গবন্ধু শিশুদের ভালবাসতেন বলেই শিশুদের প্রতিভা বিকাশ ও চিত্ত বিনোদনের জন্য শিশু একাডেমী প্রতিষ্ঠা করে গেছেন

আপডেটঃ 10:28 pm | May 31, 2017

Ad

মো: নাজমুল হুদা মানিক ॥ ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট আলহাজ্ব জহিরুল হক খোকা বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীন বাঙ্গালীর স্বাধীনতা ও বাঙ্গালীর জীবনযাত্রার মানউন্নয়নের জন্য কাজ করে গেছেন।

মহান এই নেতার জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতোনা। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শিশুদের অনেক বেশি ভালবাসতেন। বঙ্গবন্ধু শিশুদের ভালবাসতেন বলেই তিনি শিশুদের প্রতিভা বিকাশ ও চিত্ত বিনোদনের জন্য শিশু একাডেমী প্রতিষ্ঠা করে গেছেন।

তিনি বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা সহ সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানান। বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমী ময়মনসিংহ জেলা শাখার উদ্যোগে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় নগরীর দুর্গাবাড়ী রোডস্থ আরএফসি ফুড কর্ণারে এ দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমী ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি অধ্যাপক দিলরুবা শারমীনের সভাপতিত্বে দোয়া ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা।

দোয়া ও ইফতার মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র এ.বি.এম আনিছুজ্জামান আনিস, ময়মনসিংহ নজরুল মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক কাজী আজাদ জাহান শামীম।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ নেতা এম.এ কুদ্দুস, অধ্য আবু সাঈদ দ্বীন ইসলাম ফখরুল, শওকত জাহান মুকুল, এডভোকেট পীযুশ কান্তি সরকার, এডভোকেট ইমদাদুল হক সেলিম, মো: মোস্তাফিজুর বাসার ভাসানী, অধ্য জামাল উদ্দিন, ড. কবি সেলিনা রশিদ, আনিসুর রহমান স্বপন, যুবলীগ নেতা মেহেদী হাসান সহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ইফতারের পূর্বে দেশ-জাতির সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে দোয়া মোনাজাত করা হয়। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন বঙ্গবন্ধু শিশু একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম সরকার।

mayer anis pic18740498_739908639517173_8291615532919006396_n

ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জননেতা এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন নজন্মা পুরুষ। শিশুকাল থেকেই তিনি তার প্রতিভার স্বার রেখে গেছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর মত স্বাধীনতাকামী মানুষ আর বাংলাদেশে জন্ম হবেনা।

মহান সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছায় এরকম মানুষ যুগে যুগে ২/১ জনই প্রথিবীতে আগমন করেন। ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র এবিএম আনিসুজ্জামান আনিস বলেন, জাতির জনকের জন্ম হয়ে ছিল বলেই বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। অঅমরা আজ স্বাধীনতার স্বাদ ভোগ করতে পারছি।

তানা হলে আজও পরাধীনতার শৃংখলে জাতীকে বাধা পরে থাকতে হত। তিনি বলেন, জাতির জনকের পদাঙ্ক অনুসরন করেই বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার রূপকপ ও ডিচিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়ন করতে হবে।

বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারা সমুন্নত রাখতে আগামী প্রজন্মকে স্বাধীনতার চেতনায় উজ্জীবিত করে তুলতে হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ