| |

ময়মনসিংহ স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে মতবিনিময় সভা

আপডেটঃ ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ২৪, ২০১৭

Ad

ইব্রাহিম মুকুট ॥ বর্তমান সরকারের আমলে স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক সাফল্য এসেছে। এক সময় শিশুরা পুষ্টিহীনতায় ভূগেছে। এখন গ্রামগঞ্জের শিশুরাও পুষ্টিহীনতায় ভূগছে না। প্রচারেই প্রসার। ইপিআই সাফল্য পেয়েছে ব্যাপক প্রচারের মাধ্যমে।

 

যেকোন কিছু যথাযথভাবে জনগণের কাছে পৌঁছাতে পারলেই সফল হওয়া যায়। ময়মনসিংহ বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোঃ মোজাম্মেল হক জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন ১ম রাউন্ড বিভাগীয় অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ কথা বলেছেন।

 

ময়মনসিংহ বিভাগের স্বাস্থ্য বিভাগীয় পরিচালক ডাঃ নূর মোহাম্মদের সভাপতিত্বে সিভিল সার্জনের সভাকক্ষে গতকাল রবিবার ১১ টায় অনুষ্ঠিত এ সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ময়মনসিংহ রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি ড. আক্কাছ উদ্দিন ভূঁইয়া, স্বাচিব ও বিএমএ’র ময়মনসিংহ জেলার সভাপতি ডাঃ মতিউর রহমান ভূঁইয়া এবং সাধারণ সম্পাদক ডাঃ হোসেন আহম্মেদ তারা গোলন্দাজ।

 

ডাঃ আব্দুর রবের সঞ্চালনায় এ সভায় বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ খলিলুর রহমান, ময়মনসিংহ স্বাস্থ্য ও পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক আব্দুর রউফ, ক্যাম্পেইন সম্পর্কে দুটি স্লাইড উপস্থাপন করেন ডাঃ মনিরুজ্জামান।

 

সভায় ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলা থেকে সিভিল সার্জন ও জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা, এনজিও প্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ ৩৫ জন অংশগ্রহণ করেন।

 

ড. আক্কাছ উদ্দিন ভূঁইয়া তার বক্তব্যে দেশের স্বাস্থ্য খাতের অভাবনীয় সাফল্যের ফিরিস্তি তুলে ধরে বলেন শিশুদের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ও রোগমুক্ত রাখা এ’দুটি তাদের মৌলিক অধিকার। আগামী ৫ আগষ্ট সারাদেশে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুকে নীল রংয়ের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

 

১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুকে একটি লাল রংয়ের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ভিটামিন ‘এ’ দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং শিশুর মৃত্যু ঝুঁকি কমায়।

ব্রেকিং নিউজঃ