| |

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে বন্যহাতির আক্রমণে ৩টি বসতঘর আংশিক বিধ্বস্ত

আপডেটঃ 6:55 pm | August 10, 2017

Ad

জাহিদুল হক মনির,শেরপুর: শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের সীমান্তঘেষা বড় গজনী গ্রামে বন্যহাতির আক্রমণে ৩টি মাটির নির্মিত বসতঘর আংশিক বিধ্বস্ত হয়েছে।

 

গত বুধবার দিবাগত গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। তবে এঘটনায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। আংশিক বিধ্বস্ত বসতঘর মালিকরা হচ্ছে, ওই গ্রামের গিনেন্দ্র মানখিন, তুনুন মারাক, মারনাত সাংমা।
আংশিক বিধ্বস্ত বসতঘর মালিক ও গ্রামবাসী জানায়, গত বুধবার দিবাগত গভীর রাতে একদল বন্যহাতি খাদ্যের সন্ধানে ওই গ্রামে তান্ডবলীলা চালায়।

 

বন্যহাতির দল ওই গ্রামের কৃষকদের প্রায় ২০শতাংশ জমির শিমুল আলুর ক্ষেত ও প্রায় ১৫টি কলাগাছ বিনষ্ট করে। এ সময় হাতির দল ৩টি বসতঘর আংশিক বিধ্বস্ত করে। আংশিক বিধ্বস্ত বসতঘরগুলো যেকোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে।
আংশিক বিধ্বস্ত বসতঘর মালিক মারনাত সাংমা (৩০) জানান, ঘরের ভিতর চৌকির উপর তার দুই সন্তান ঘুমিয়ে ছিলেন। অল্পের জন্যে তাদের জীবন রক্ষা হয়েছে।

 

তবে বসতঘর আংশিক বিধ্বস্ত হলেও এ ঘর মাটির নির্মিত হওয়ায় যেকোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে। তাই ওই বসবাস করা যাবে না।

রাংটিয়া রেঞ্জের গজনী বিটকর্মকর্তা মো. আব্দুর রফিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ব্রেকিং নিউজঃ