| |

ময়মনসিংহ শহরের সাতঘরিয়া পাড়া থেকে ০২ টি বিদেশী পিস্তল ও গুলিসহ একজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪

আপডেটঃ ৯:২০ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৬, ২০১৭

Ad

১।     বাংলাদেশের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির ক্রান্তিলগ্নে “বাংলাদেশ আমার অহংকার” এই শ্লোগান নিয়ে জন্ম হয়  র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে র‌্যাব বাংলাদেশের মানুষের কাছে আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতীক।

 

বিভিন্ন ধরনের চাঞ্চল্যকর অপরাধের স্বরূপ উৎঘাটন করে অপরাধীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার কারনেই এই প্রতিষ্ঠান মানুষের কাছে আস্থা ও নিরাপত্তার অন্য নাম হিসেবে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা লাভ করেছে।সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে অপরাধীরা বিভিন্ন অপরাধ করছে তার মধ্যে অন্যতম সন্ত্রাস ও অস্ত্র ব্যবসা।

 

র‌্যাব তার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জঙ্গি,  সন্ত্রাস, মাদক, অস্ত্র, অপহরণ, প্রতারণা ও জালিয়াতীসহ  বিভিন্ন প্রকার অবৈধ কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আপোষহীন অবস্থানে থেকে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে যা দেশের সর্বস্তরের জনসাধারন কর্তৃক ইতোমধ্যেই বিশেষভাবে প্রশংসিত হয়েছে।

২।     এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১৪ ময়মনসিংহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিনিঃ এএসপি রাজীব কুমার দেব, ভারপ্রাপ্ত উপ-অধিনায়ক, র‌্যাব-১৪, টিটিসি ময়মনসিংহ এর নেতৃত্বে একটি চৌকস আভিযানিক দল ২৬ আগষ্ট ২০১৭ খ্রিঃ ০২৪৫ ঘটিকায় ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ালী থানাধীন সাতঘরিয়া পাড়া থেকে একাধিক মামলার আসামী ১। ইমতিয়াজ আহম্মেদ @ রনি (৩০),

 

পিতা-মোঃ আলাউদ্দিন, সাং-মুক্তাকাঠের চর, আলিমুদ্দিন ব্যাপারী কান্দি, থানা-নড়িয়া, জেলা-শরিয়তপুর বর্তমানে আকুয়া ৮/১, সাতঘরিয়াপাড়া, থানা ও জেলা-ময়মনসিংহকে ০২ টি বিদেশী পিস্তল, ০১ রাউন্ড গুলি, ০২ টি চাপাতি, ১৫ (পনের) মিলি দেশীয় মদ ও অস্ত্র বিক্রির নগদ ২২,০০০/- টাকাসহ গ্রেফতার করেন।

 

উল্লেখ্য যে, গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে ময়মনসিংহ কোতয়ালী থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গুলিসহ ময়মনসিংহ কোতয়ালী থানায় মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।