| |

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ করতে চায়…..অসীম কুমার উকিল

আপডেটঃ 12:38 am | October 17, 2017

Ad

শাহ্জাদা আকন্দ নেত্রকোণা ॥ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংকৃতিক বিষয়ক সম্পাদক নব্বই এর সৈরাচার বিরোধী গণ আন্দোলনের অন্যতম নেতা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অসীম কুমার উকিল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু আমার আদর্শ,

 

আওয়ামীলীগ আমার ঠিকানা, শেখ হাসিনা আমার পথপ্রদর্শক এবং নৌকা আমার প্রতীক, তিনি আরও বলেন জয়বাংলা জয়বঙ্গবন্ধুর স্লোগান ধারণ করে ছাত্রলীগের রাজনীতি শুরু করেছিলাম সেই তখন থেকেই নৌকায় যাত্রী হয়ে সারা দেশে গিয়েছি,

 

বলেছি বঙ্গবন্ধুর জীবন আদর্শের কথা, বলেছি আমার প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কথা, বলেছি আওয়ামীলীগের ইতিহাস ঐতিয্যের কথা। এবার আপনাদের নানা সমস্যা, বিভিন্ন অভাব অভিযোগের কথা জাতির সামনে তুলে ধরতে নৌকার যাত্রী হয়ে মহান জাতীয় সংসদে গিয়ে তুলে ধরতে চাই।

 

এজন্যে চাই আপনাদের আন্তরিক সহযোগিতা, দোয়া, আশির্বাদ, ¯েœহ-মমতা ও ভালবাসা, আমরা যারা আওয়ামীলীগের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ, সবাই এক ও অভিন্ন, এক আদর্শেই পথ চলছি আমরা।

 

অনেক সময় নিজেদের ব্যাক্তিগত চাওয়া পাওয়া নিয়ে নিজেদের মধ্যে ভূল বুঝাবুঝি হয়ে থাকে, তাই বলে আমরা কেউই আওয়ামীলীগের তথা নৌকার ক্ষতি বা অকল্যাণ হোক তা চাইনা।

 

আমি বলছি বছর ঘুরে আসছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনে সব ভেদাভেদ ভূলে গিয়ে সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আবারও প্রধান মন্ত্রীর আসনে বসাতে হবে।

 

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশ বাঁচাতে দেশের সাধীনতার সার্বভৌমত্ত্ব রক্ষায় ঘরে ঘরে নৌকার পক্ষে গণজোয়ার গড়ে তুলতে হবে। দেশের উন্নয়নের ধারাকে গতিশীল করতে আবারও রাষ্ট্র্য নায়ক হিসাবে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই।

 

নেত্রকোণা জেলা আটপাড়া উপজেলা সুখারী ইউনিয়নের প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা মিরাজ উদ্দিনের মৃত্যুতে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অথিতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রিয় আওয়ামীলীগের সাংকৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল ও সহ ধর্মীনি বাংলাদেশ আওয়ামী যুব মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল।

 

দোয়া মাহফিল থেকে আসার পথে সুখারী ইউনিয়নের রেইন্ট্রিতলা বাজারে আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক বিশাল কর্মী সমাবেশে পথ সভায় সুখারী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সভাপতি রাহোত মিয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম আরমানের সঞ্চালনায় প্রধান অথিতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

এসময় পথসভার বিশেষ অথিতির বক্তব্য রাখেন ভাটি বাংলার অগ্নি কন্যা হিসাবে খ্যাত বাংলাদেশ যুব আওয়ামী মহিলা লীগের কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাবেক এম.পি অধ্যাপক অপু উকিল।

 

সে সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ সহ সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংঘটনের শত শত নেতা ও কর্মি বৃন্দ। এসময় কেন্দ্রীয় নেতা অসীম কুমার উকিল ও অপু উকিলের কথা শুনতে পেরে আশে পাশের এলাকার হাজার হাজার কর্মী সমর্থক ও সাধারন জনগন একনজর দেখতে ছুটে আসে।

 

কেন্দ্রীয় নেতাদের মুখে বক্তব্য শুনে যিমিয়ে পড়া ত্যাগী-নির্যাতিত কর্মীদের মাঝে উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা দেয়। পথসভার শেষে নেতা কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নাজিরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ফজলুল রহমানের মৃত্যুতে পরিবার বর্গকে সমবেদনা জানানোর জন্যে সেখানে ছুটে যান। শোকাগ্রস্থ পরিবারের খুঁজ খবর নেন ও সমবেদনা জানান।

 

এসময় তার সহ-সঙ্গী হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা কেন্দুয়া পৌরসভার মেয়র আসদুল হক ভূইয়া, আটপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সবেক সাধারন সম্পাদক হাজী মোজাম্মেল হক, আবু নাছের তালুকদার মিলু, সহ-সভাপতি ছাইদুল হক তালুকদার, দপ্তর সম্পাদক শাহজাহান কবীর,

 

সুখারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ছাইদুল ইসলাম আরমান, নেত্রকোণা জেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক জামিউল ইসলাম খান জামি, জেলা যুবলীগ আহবায়ক সদস্য হাবিবুল ইসলাম খান রিপন, তাপস ব্যানার্জি, আটপাড়া সেচ্চাসেবক লীগের আহবায়ক মোঃ জহিরুল ইসলাম খান হিরা, আটপাড়া উপজেলা যুবলীগ নেতা আরিফুজ্জামান খান টিটু,

 

রুকুনুজ্জামান খান রুকন, কেন্দুয়া উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক শাহজাহান মিয়া, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল কাইয়ুম রুকন ও আটপাড়া উপজেলা যুবমহিলালীগের সাভাপতি তানিয়া নাজনিন চৌধুরী রেখা,

 

আওয়ামীলীগ নেতা এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ গোলাপ, এডভোকেট নূরুল আলম, শহীদুল হক ফকির বাচ্চু, অধ্যাপক আঃ মান্নান ভূইয়া,

 

কেন্দুয়া উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি শাহজাহান ভূইয়া, যুবলীগ নেতা তাপস ব্যানার্জি, উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক মুস্তাফিজুর রহমান রিপন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আবীর আহম্মদ খান রুজেন, ইমতিয়ার হোসেন তালুকদার প্রমুখ।

ব্রেকিং নিউজঃ