| |

ময়মনসিংহ পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশনের উন্নিত করায় মেয়র টিটুর নেতৃত্বে শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে বিশাল আনন্দ মিছিল

আপডেটঃ ২:০২ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৩, ২০১৮

Ad

ইব্রাহিম মুকুটঃ গতকাল বিকাল ৪ ঘটিকায় নিকার মিটিংএ জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ময়মনসিংহ পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নিত করায় জননেত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে এক বিশাল আনন্দ মিছিল বের হয়। মিছিলটি টাউনহল প্রাঙ্গন হতে নতুন বাজার হয়ে গাঙ্গিনার পাড়, স্টেশন রোড হয়ে রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্তরে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলের নেতৃত্ব দেন ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র ইকরামুল হক টিটু। আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগ, কৃষকলীগ ও শ্রমিকলীগের সহস্্রাধিক নেতাকর্মী তাৎক্ষনিকভাবে অনুষ্ঠিত এই মিছিলে অংশগ্রহন করেন। মিছিল শেষে মেয়র ইকরামুল হক টিটু ময়মনসিংহ পৌরবাসীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু তনয়া জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

 

এসময় মিছিলে অংশগ্রহনকারী নেতাকর্মীরা তুমুল করতালি দিয়ে সমর্থন জ্ঞ্যাপন করেন এবং মেয়র টিটুকে আগামী দিনে মেয়র হিসেবে দেখার প্রত্যাশা জানিয়ে “টিটু ভাই এগিয়ে চলো আমরা আছি তোমার সাথে” “উন্নয়নের রূপকার মেয়র টিটু মেয়র টিটু” প্রভৃতি স্লোগান দিয়ে আনন্দ উল্লাস করতে থাকে। উপস্থিত নেতাকর্মীরা পরস্পরের মাঝে মিষ্টি বিতরন করেন।

 

মেয়র টিটু আনন্দ মিছিলের পর মিছিলে অংশগ্রহনকারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আওয়ামীলীগ যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় আপনারা যদি আমার পাঁশে থাকেন তবে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনকে বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর ও আধুনিক শহর হিসেবে গড়ে তুলব। ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শওকত উসমান লিটন বলেন, যুবসমাজের কাছে মেয়র টিটু অত্যন্ত প্রিয়। আজকের এই আনন্দ মিছিলে যুবকদের উপস্থিতি বেশি হওয়া মূল কারণ এটাই। তিনি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ময়মনসিংহ পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশন করায় যুবলীগের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানান। পৌর কৃষকলীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, মেয়র টিটু জনবান্ধব যেকোনো সমস্যায় পরলে আমরা তাকে সর্বক্ষন পাশে পাই। এধরনের মেয়র ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনে বার বার দরকার। পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক আহ্বায়ক প্রদীপ ভৌমিক বলেন, সংখ্যালঘু বান্ধব মেয়র টিটু ময়মনসিংহ পৌরসভার বিভিন্ন মন্দির, মসজিদে সাহায্য করে উপসনালয়গুলোকে সুন্দর করার চেষ্ঠা করেছেন। ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ কর্তৃক ভেঙ্গে দেওয়া পাটগুদামের দূরদুরিয়া কালী মন্দিরে মেয়র টিটু সাড়ে পাচঁ লক্ষ টাকা মন্দির পূননির্মানের জন্য দিয়েছেন।

 

অন্য কোনো মন্ত্রী বা এম.পি পাটগুদামের ভেঙ্গে ফেলা মন্দিরটি পূনর্নিমানের জন্য সাহায্য করেন নাই। একমাত্র মেয়র টিটু সংখ্যালঘুদের উক্ত মন্দিরটি পূনর্নিমানের জন্য এগিয়ে এসেছেন তাই তিনি সংখ্যালঘুদের অত্যন্ত প্রিয়। নেত্রীর কাছে তিনি মেয়র টিটুকে পূনর্বার আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে মনোনয়ন দিতে আহ্বান জানান। চেম্বার অব কমার্সের সহ সভাপতি ব্যাবসায়ী নেতা শংকর সাহা বলেন, মেয়র টিটু ব্যাবসায়ি বান্ধব। তিনি কোনো প্রকার অনৈতিক কাজের সাথে যুক্ত নন। তাই ব্যবসায়ীরা মনে করে মেয়র টিটুর মত ব্যাক্তিদের উচিত সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া। মেয়র টিটুকে যদি মনোনয়ন দেওয়া হয় তবে ময়মনসিংহের ব্যাবসায়ীরা দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে মেয়র টিটুকে সমর্থন জানিয়ে পূনরায় সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করবেন। উক্ত আনন্দ মিছিলে পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ ও সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলররা অংশগ্রহন করেছেন।