| |

খুনীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে বিক্ষোব্ধ যুবলীগের মানববন্ধন সমাবেশ

আপডেটঃ ৪:৩৮ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৭, ২০১৮

Ad

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ : আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগ সদস্য সাজ্জাদ আলম শেখ আজাদ ওরফে আজাদ শেখকে গুলি, জবাই করে খুন করে এবং পরে পেট ও বুক চিরে কলিজা ও ফুসফুস বের করে যায় খুনীরা। ঘটনায় ৭ দিন অতিবাহিত হলেও কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ মামলাটি এন্ট্রি না করায় এবং কোনো এ্যাকশন না থাকায় বিক্ষোব্ধ আজাদের পরিবার ও ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের মাঝে তীব্র উত্তেজনো বিরাজ করছে । আজাদ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত প্রকৃত খুনীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে সোমবার দুপুরে বিক্ষোভ মিছিল, প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। এ সময়ে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে পুলিশ প্রশাসন মামলা না নিলে কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে বলে বক্তারা জানান।
ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার ও রেঞ্জ ডিআইজি’র কার্যালয়ের সামনে ৬ আগস্ট দুপুরে বিক্ষোভ এবং মানববন্ধন সমাবেশে জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শাহ শওকত উসমান লিটনের সভাপতিত্বে এবং কোতুয়ালী যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এইচ. এম ফারুকের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, আওয়ামীলীগ নেতা ময়মনসিংহ পৌর মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম মিন্টু, মহানগর কৃষকলীগের সভাপতি এবি সিদ্দিক, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক শাহীনুর রহমান, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক রাসেল আব্দুল্লাহ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ন আহবায়ক শেখ মাসুম, মরহুম আজাদ শেখের স্ত্রী দিলরুবা আক্তার দিলু প্রমুখ।
এ সময়ে জেলা আওয়ামীলীগ, মহানগর আওয়ামীলীগ, জেলা যুবলীগ, মহানগর যুবলীগ, কৃষকলীগ, ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ্য, দলীয় বিরোধের জেরধরে গত ৩১ জুলাই প্রকাশ্যে দিবলোকে মহানগর যুবলীগের সদস্য আজাদ শেখকে গুলি, কুপিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে একই এলাকার সন্ত্রাসীরা।

ব্রেকিং নিউজঃ