| |

ময়মনসিংহ ডিবি’র পৃথক দুটি অভিযানে ০১ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী (জঙ্গি সংশ্লিষ্ট), ০১ মাদক ব্যবসায়ী নিহত ও ০৫ পুলিশ সদস্য আহত।

আপডেটঃ ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৪, ২০১৮

Ad

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ ০২/১১/১৮ ইং তারিখ দিবাগত রাতে জেলা গোয়েন্দা শাখার একটি টিম মুক্তাগাছা থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান ডিউটি করাকালে ময়মনসিংহ মুক্তাগাছা থানাধীন রসুলপুর টু কাঁঠালিয়া ঝলই ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় পৌছালে কিছু অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করতে থাকে। পুলিশ সরকারী সম্পদ ও আতœরক্ষার্থে শর্টগানের ফাকা গুলি বর্ষণ করে। এক পর্যায়ে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা গুলি করতে করতে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল হতে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী মোঃ আব্দুল্লাহেল কাফি (৩১),পিতা-মোস্তাফিজুর রহমান, সাং-আমদালিয়া, থানা-ফুলবাড়ীয়া, জেলা-ময়মনসিংহকে গুলিবিদ্ধ আহত অবস্থায় পাওয়া যায়। তার হেফাজত হতে একটি কাঠের বাটযুক্ত এলজি, ০২ রাউন্ড কার্তুজ এবং ঘটনাস্থল হইতে ১টি গুলির খোসা ও ১টি দা ইং ০৩/১১/১৮ তারিখ ০০.০৫ ঘটিকার সময় উদ্ধার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ০২ এর অধিক মামলা আছে। যাহা জঙ্গী সংক্রান্ত। একটিতে দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী। ডিবি’র আর একটি টিম অদ্য ০৩/১১/১৮ তারিখ কোতোয়ালী থানা এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান করাকালে কোতোয়ালী থানাধীন সাহেব কাচারী বাজারস্থ বিসমিল্লাহ হ্যাচারী সংলগ্ন দরিয়াপুর মাঠের সামনে শম্ভুগঞ্জ টু কিশোরগঞ্জগামী মহাসড়কের পার্শ্বে পৌছলে অজ্ঞাতনামা কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী পুলিশকে লক্ষ্য করিয়া অতর্কিতভাবে গুলি করে। পুলিশ সরকারী সম্পদ ও আতœরক্ষার্থে শর্টগানের ফাকা গুলি বর্ষণ করে। এক পর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি করতে করতে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল হতে মাদক ব্যবসায়ী আলমাগীর (২৭), পিতা-ইব্রাহিম, সাং-কালিবাড়ী রোড (কালীবাড়ী পুরাতন গুদারাঘাট), থানা-কোতোয়ালী, জেলা-ময়মনসিংহকে গুলিবিদ্ধ আহত অবস্থায় পাওয়া যায় এবং তার হেফাজত হতে ০২ (দুই) কেজি গাঁজা ইং ০৩/১১/১৮ তারিখ রাত ০১.৩০ ঘটিকার সময় উদ্ধার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ০৩ এর অধিক মামলা আছে। উভয় ঘটনায় ০৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়। আহত অস্ত্রধারী ও মাদক ব্যবসায়ীকে চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরন করা হলে, কর্তব্যরত ডাক্তার আহত অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীকে পরীক্ষান্তে মৃত ঘোষণা করেন।

ব্রেকিং নিউজঃ