| |

সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে দূর্নীতিকে পরাস্ত করতে হবে : তারুণ্যের সংলাপে আলোচকবৃন্দ

আপডেটঃ 7:11 pm | March 03, 2019

Ad

শরৎ সেলিম: ‘তারুণ্যের অগ্রাধিকার’ বিষয়ে সংলাপ। তরুণদের চিন্তা ও চেতনাকে অগ্রাধিকার দিয়ে আজ সকাল ১০ টায় ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের শহীদ শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল এর আয়োজনে আলোচনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সামাজিক, আর্থিক উন্নয়ন সহ দক্ষতা উন্নয়ন এবং আত্মকর্মসংস্থান, সরকারী সেবায় জবাবদিহিতা নিশ্চিত করণের মাধ্যমে দূর্নীতি দমন, বিনোদন, মানসিক স্বাস্থ্য ও শারিরীক বিকাশের সুযোগ বৃদ্ধি বিষয়ে তরুণদের মধ্য থেকে যুক্তিগত বক্তবৌ উঠে আসে।

ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের রিজিওনাল কো-অর্ডিনেটর নিরুপমা ভৌমিক, রিজিওনাল ম্যানেজার নার্গিস আক্তার সহ উপস্থিত ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের আয়োজকবৃন্দের সমন্বয়ে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা সাংবাদিক ও আলোকিত ময়মনসিংহ পত্রিকার সম্পাদক প্রদীপ ভৌমিক,

দৈনিক কালের কন্ঠ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার নিয়ামুল কবির সজল, ময়মনসিংহ জেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক নূরুল আমিন কালাম, আওয়ামী আইন ছাত্রপরিষদের সভাপতি সুমন চন্দ্র ঘোষ, মহানগর আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো: রফিকুল ইসলাম রতন, বাংলাদেশ যুব মহিলালীগ জেলা শাখার কর্মী মাহমুদা হোসেন মলি,

মহানগর মহিলাদলের সাধারণ সম্পাদক আতিয়া ফাইরুজ মলি, মহানগর জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ফারিয়া তাসনিম সহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ। মূল অনুষ্ঠানে উপস্থিত আলোচকদের মধ্য থেকে উঠে আসে দেশের উন্নয়ন ও আত্ম কর্মসংস্থানের কথা। বলেন বাংলাদেশের উন্নয়নে তরুণ সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে।

সরকার ও দাতা সংস্থাগুলোকে তরুণদের কর্মসংস্থানে ভূমিকা পালন করতে হবে। তাহলেই দেশের একটা স্বচ্ছতা ফিরে আসবে। বর্তমান সরকারের সফলতা বিগত সময়ের সরকারের চেয়ে অনেক গুন বেশি।

বক্তব্যে আরো উঠে আসে অভিজ্ঞতা ও তারুণ্যের মধ্যে দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বাস্তবায়নের কথা, সামাজিক আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সকল দুর্নীতিকে পরাস্তকরণের কথা, তরুণদের মেধাবীকরণের ভূমিকা রেখে একটি মানবিক দেশ গড়া, কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিগত সরকারের আমলে বাংলাদেশ দূর্নীতিতে সমৃদ্ধ ছিল, সরকারকে বর্তমান সময়ে আধুনিক ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে তরুণদেরকেও ভূমিকা রাখতে হবে, প্রযুক্তি ও বিজ্ঞান ব্যবহার করে শহর থেকে গ্রামীণ জনপদ পর্যন্ত সেবা প্রদানে সর্বক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার চলছে,

এই প্রযুুক্তিতে আরো ত্বরান্বিত করতে হবে, প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে দূর্নীতিকে পরিহার করা সম্ভব, সামাজিক পরিবর্তনে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। আলোচনা পর্ব শেষে সারাংশ উপস্থাপন, সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ও ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে ইউএসএআইডি, ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল, ইউকেএইড এর আয়োজনে মূল অনুষ্ঠানটির সমাপ্তি হয়। ছবি ও তথ্য সংগ্রহে : শরৎ সেলিম, বিশেষ প্রতিনিধি, দৈনিক আজকের খবর।

ব্রেকিং নিউজঃ