| |

বিশ্বকাপের প্রাথমিক দলে চমক আফিফ ফরহাদ ইয়াসির

আপডেটঃ ৮:০৯ অপরাহ্ণ | মার্চ ০৭, ২০১৯

Ad

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ এবং ঢাকা প্রিমিয়ার টি-টোয়েন্টি লিগ ক্রিকেটে ভালো খেলার পুরস্কারটা নগদেই পেলেন আফিফ হোসেন ধ্রুব, ফরহাদ রেজা, ইয়াসির আলি রাব্বিরা। ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য ৩০ সদস্যের প্রাথমিক দলে রাখা হয়েছে এ তিন ক্রিকেটারকেই। সাম্প্রতিক সময়ে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলার পুরস্কারস্বরূপ প্রাথমিক স্কোয়াডে জায়গা হয়েছে তাদের।

সবশেষ প্রিমিয়ার টি-টোয়েন্টিতে প্রায় ২৩০ স্ট্রাইকরেটে ১০৭ রান করেছেন ফরহাদ রেজা, বল হাতে নিয়েছেন টুর্নামেন্ট সর্বোচ্চ ১১ উইকেট। এর আগে বিপিএলে রংপুর রাইডার্সের হয়েও বেশ কয়েকটি ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিং নৈপুণ্য দেখিয়েছেন এ পেস বোলিং অলরাউন্ডার। তাই বিশ্বকাপের প্রাথমিক স্কোয়াডে তাকে রেখে দেয়ার কথাই ভাবছেন নির্বাচকরা।

এছাড়া আফিফ হোসেন ধ্রুব এবং ইয়াসির আলি রাব্বি গত প্রায় এক-দেড় বছর ধরেই দারুণ খেলছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। মিডল অর্ডার কিংবা টপঅর্ডারে সমান দক্ষতার সঙ্গে ব্যাটিং করার উদাহরণ দেখিয়েছেন এ দুই তরুণ। সঙ্গে রয়েছে আফিফের কার্যকরী অফস্পিন বোলিংটাও। গতবছর অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে দুর্দান্ত অলরাউন্ড নৈপুণ্য দেখানো আফিফকে দেখা যেতে পারে চলতি বছরের মে-জুলাইতে হতে যাওয়া বিশ্বকাপেও।

এছাড়াও ইনজুরির শঙ্কা থাকা স্বত্ত্বেও ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদকেও রাখা হয়েছে বিশ্বকাপের বিবেচনায়। মাশরাফি বিন মর্তুজা, মোস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেনদের সঙ্গে তাকেও দেখা যেতে পারে ইংল্যান্ডগামী বিশ্বকাপ দলে। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে ৯ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী ছিলেন ডানহাতি এ পেসার।

বিশ্বকাপের প্রাথমিক দল সম্পর্কিত প্রশ্নের জবাবে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জাগোনিউজকে জানান, ‘অন্যান্যবারের মতো এবার প্রাথমিক দল আইসিসির জমা দেয়ার নির্দিষ্ট কোনো বাধ্যবাধকতা কিংবা সময়সীমা নেই। তারপরেও ভিসা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ক্রিকেটারদের জার্সির কথা বিবেচনা করে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস থেকে জানানো হয়েছে ২০ এপ্রিলের মধ্যে প্রাথমিক দল জমা দিতে। তবে আমরা চেষ্টা করবো ১৫ এপ্রিলের মধ্যেই প্রাথমিক দল ঘোষণা করে দিতে। কারণ ২২ এপ্রিল থেকে শুরু হবে বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক অনুশীলন। আগামী ২ মে আয়ারল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওনা হবে।’

দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা গত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের সময়ই বলেছিলেন টাইগারদের বিশ্বকাপ দল প্রায় চূড়ান্ত। এখন খুব বেশি কাটাছেঁড়া করা হবে না দলে। প্রধান নির্বাচকের কন্ঠেও শোনা গেল একই কথা। তিনিও জানালেন গত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের প্রাথমিক স্কোয়াডে থাকা প্রায় সবাই-ই থাকবেন বিশ্বকাপের প্রাথমিক দলেও।

নান্নুর সংলাপ, ‘আমরা ৪ মাস আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে পূর্ণাঙ্গ সিরিজের জন্য যে অনুশীলন ক্যাম্প করেছিলাম, সে সিরিজের প্রায় সবাই থাকছেন বিশ্বকাপের প্রাথমিক দলে। তবে নতুন করে যোগ হবে তাসকিন আহমেদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, ইয়াসির আলি রাব্বি, ফরহাদ রেজারা ঢুকছে। তবে বিশ্বকাপের স্কোয়াডে থাকছেন না এনামুল হক বিজয়, নাসির হোসেনরা। দুই তরুণ পেসার কাজী অনিক এবং শরীফুল ইসলামকেও রাখা হচ্ছে না। মুমিনুল হক থাকছেন এবারের স্কোয়াডে।’

বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশের ত্রিশ সদস্যের সম্ভাব্য প্রাথমিক স্কোয়াড

১. তামিম ইকবাল, ২. লিটন দাস, ৩. ইমরুল কায়েস, ৪. সৌম্য সরকার, ৫. মুশফিকুর রহীম, ৬. সাকিব আল হাসান, ৭. মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ৮. মোহাম্মদ মিঠুন, ৯. সাব্বির রহমান, ১০. নুরুল হাসান সোহান, ১১. মেহেদি হাসান মিরাজ, ১২. মোহাম্মদ সাঈফউদ্দীন, ১৩. ফরহাদ রেজা, ১৪. আফিফ হোসেন ধ্রুব, ১৫. ইয়াসির আলি রাব্বি, ১৬. মাশরাফি বিন মর্তুজা, ১৭. মোস্তাফিজুর রহমান, ১৮. রুবেল হোসেন, ১৯. তাসকিন আহমেদ, ২০. আবু হায়দার রনি, ২১. শফিউল ইসলাম, ২২. সানজামুল ইসলাম, ২৩. নাজমুল ইসলাম অপু, ২৪. নাঈম হাসান, ২৫. তাইজুল ইসলাম, ২৬. মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, ২৭. আরিফুল হক, ২৮. মুমিনুল হক, ২৯. আবু জায়েদ রাহী, ৩০. নাজমুল হোসেন শান্ত/সাদমান ইসলাম অনিক