| |

অক্টোবরে সম্মেলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে আ.লীগ

আপডেটঃ 8:01 pm | March 30, 2019

Ad

 কেন্দ্রীয় কমিটির তিন বছর মেয়াদ পূর্তিতে চলতি বছরের অক্টোবরে ২১তম জাতীয় সম্মেলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে আওয়ামী লীগ। শুক্রবার (২৯ মার্চ) গণভবনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সভায় এ বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয় বলে জানা গেছে। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অক্টোবরে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির তিন বছর মেয়াদ শেষ হবে, তাই অক্টোবরেই যাতে সম্মেলন করা যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সেই প্রস্তুতি রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

সভায় কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের আগে তৃণমূলের কাউন্সিল সম্পন্ন, দলকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী ও সম্মেলন সফল করার লক্ষ্যে আটটি টিম গঠনেরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া সভায় বনানীর অগ্নিকাণ্ড, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে বর্বরোচিত সন্ত্রাসী হামলা, উপজেলা নির্বাচন ও বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপনসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করে আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারণী এ ফোরাম।

সভায় উপজেলা নির্বাচনে যারা গ্রুপিং করেছে, দলের সিদ্ধান্তের বাইরে কাজ করেছে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এ নির্বাচনে কোন্দলে মন্ত্রী-এমপিদের জড়িত থাকার বিষয়টিও আলোচনা হয়।

গঠিত আটটি টিম রমজানের ঈদের পর কাজ শুরু করবে। এ টিমগুলো আগামী জাতীয় সম্মেলনের আগেই তৃণমূলে সম্মেলনগুলো করবে, যেসব জায়গায় সম্মেলন হয়েছে কমিটি হয়নি সেসব জায়গায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেওয়া দলকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে কাজ করবে। দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যদের নেতৃত্বে এসব টিম গঠন করা হয়েছে।

এদিকে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সভাপতিমণ্ডলীর সভার বিভিন্ন সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন ও সংগঠনের জাতীয় কাউন্সিলের প্রস্তুতিকে সামনে রেখে দেশব্যাপী সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করার লক্ষ্যে আটটি টিম গঠন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দলের উপদেষ্টামণ্ডলী, প্রেসিডিয়াম এবং কেন্দ্রীয় কমিটির নেতাদের সমন্বয়ে গঠিত এ টিমগুলো সাংগঠনিক বিভাগের কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণ ও গতিশীল করবে।

সভার শুরতেই আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বনানী অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের স্মরণে গভীর শোক প্রকাশ ও তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। একইসঙ্গে সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে পবিত্র জুমার দিনে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করা হয় এবং এ ঘটনায় হতাহতের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আর্ডের্ন-এর প্রতিও গভীর সহমর্মিতা জানান।

সভায় সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্নস্থানে সংগঠিত অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, বহুতল ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে বিল্ডিং কোড যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে। অগ্নি দুর্ঘটনাসহ সার্বিক নিরাপত্তা বিষয়ে ভবন মালিক ও ব্যবহারকারীদের যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে এবং এ ক্ষেত্রে সরকারি সংস্থাসগুলোর কঠোর নজরদারি বাড়ানোসহ জনসচেতনতা সৃষ্টির ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে।

বনানীর অগ্নিকাণ্ডে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতর, সশস্ত্র বাহিনী, আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী সংস্থা, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের স্বেচ্ছাশ্রমী শিক্ষার্থীদের সাহসী ও কার্যকরী ভূমিকার জন্য সভার পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুকন্যা সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সভায় স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের নির্বাচনে যে সব মন্ত্রী, এমপি ও দলীয় নেতারা সংগঠনের মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করছেন না তাদের কর্মকাণ্ডের ওপর প্রতিবেদন তৈরি ও ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সাংগঠনিক নির্দেশনা দেওয়া হয়।

সভায় দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম, মোহাম্মদ নাসিম, কাজী জাফরউল্লাহ, অ্যাডভোকেট সাহারা খাতু, শ্রী পীযুষ কান্তি ভট্টাচার্য্য, নুরুল ইসলাম নাহিদ, ড. আব্দুর রাজ্জাক, কর্নেল (অব) ফারুক খান, শ্রী রমেশ চন্দ্র সেন, অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খান, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ ও উপ-দফতর ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিং নিউজঃ