| |

মুশফিকের বিশ্বাস, বাংলাদেশের সেমিতে ওঠার সামর্থ্য আছে

আপডেটঃ ৬:৩৭ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৮, ২০১৯

Ad

২০ বছর বয়সে প্রথম বিশ্বকাপ খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। সেটি ছিল ২০০৭ বিশ্বকাপ। মাঝে খেলেছেন বিশ্বকাপের আরও দুটি টুর্নামেন্ট। এবার ইংল্যান্ডে খেলতে যাচ্ছেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ বিশ্বকাপ। এ সময়ে বয়স বাড়ার সঙ্গে দলে তাঁর দায়িত্বও বেড়েছে। ইংল্যান্ডে মুশফিক এই দায়িত্বটুকু নিয়ে নিজেকে নিংড়ে দিতে চান।

বিশ্বকাপ সামনে রেখে বাংলাদেশ দল আজ অনুশীলন করেছে শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। সংবাদ সম্মেলনে এসে মুশফিক মনে করিয়ে দিলেন সেই পুরোনো কথাই—শুধু বিশ্বকাপ নয় জাতীয় দলের হয়ে যে কোনো ম্যাচই ক্রিকেটারদের জন্য গর্বের মুহূর্ত। আর টুর্নামেন্ট যদি হয় বিশ্বকাপ তাহলে ভালো করার আলাদা প্রেরণা তো থাকেই। দলে তিন-চারজন ক্রিকেটার আছেন যাঁরা এবার ক্যারিয়ারের চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলবেন। সবাই এই বিশ্বকাপ স্মরণীয় করে রাখতেই চান।

মুশফিক বলেন, ‘আমরা তিন-চারজন আছি যাঁরা এবার চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলব। অবশ্যই আমাদের ইচ্ছা আছে যেন স্মরণীয় করে রাখতে পারি। অবশ্যই এটা অনেক কঠিন কাজ। যে কোনো কাজই এত সহজে পাওয়া গেলে মজাটা আর ওরকম থাকে না।’ মুশফিক ছাড়াও তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি বিন মুর্তজার জন্য এটি হতে যাচ্ছে চতুর্থ বিশ্বকাপ।

বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়ক বিশ্বকাপে দল নিয়ে নিজের ব্যক্তিগত লক্ষ্যের কথাও জানিয়েছেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি বিশ্বাস করি, আমাদের দলের নকআউট পর্বে যাওয়ার যথেষ্ট সামর্থ্য আছে। আর নকআউট পর্বে গেলে যে কোনো কিছুই ঘটতে পারে এটাই সবাই জানে।’ এবার বিশ্বকাপে গ্রুপপর্বে প্রতি দল খেলবে একে-অপরের বিপক্ষে। এরপর সরাসরি সেমিফাইনাল। অর্থাৎ মুশফিকের বিশ্বাস, সেমিফাইনালে ওঠার মতো শক্তি রয়েছে দলের। আর সেমিতে উঠলে নিশ্চয়ই বাদ পড়ার জন্য কেউ মাঠে নামবে না!

বিশ্বকাপে ভালো করতে আয়ারল্যান্ড সিরিজকে গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করছেন মুশফিক, ‘সামনে আয়ারল্যান্ড সিরিজ, এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিউজিল্যান্ড সফরের পর আমরা আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলিনি। সেই আমেজটা পাওয়া এবং দল হিসেবে একতাবদ্ধ হওয়া—আমার মনে হয় আয়ারল্যান্ড সিরিজ থেকে এটা শুরু হবে।’ ইংল্যান্ডে ৩০ মে থেকে শুরু হবে বিশ্বকাপ। তার আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এই টুর্নামেন্টের অপর দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৭ মে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হয়ে ত্রিদেশীয় এই সিরিজ শুরু করবে বাংলাদেশ দল।