| |

নির্বাচনে কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা চেষ্টা করবেন না- ওসি মাহমুদ ইসলাম

আপডেটঃ ১১:৩৪ অপরাহ্ণ | মে ০৪, ২০১৯

Ad

আগামীকাল ০৫ মে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন সাধারণ মানুষ সুন্দর সুষ্ট পরিবেশে নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারে সে লক্ষে আইন শৃংখলা স্বাভাবিক রাখতে ‍তিনি জনগনের জানমালের নিরাপত্তা ও ভোটে জনগনের শান্তিপুর্ন অংশগ্রহন ও নিরাপদে বাড়ি ফেরা নিশ্চিত করনসহ অবাধ সুষ্ঠ ভোট গ্রহনে সাংবাদিক ও সকল মহলের সহযোগিতা চেয়েছেন।

তিনি বলেন যারা কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার চেষ্টা করবেন তাদের কেউ ছাড় পাবেন না ।ভোট দেওয়া আপনার আমার সকলের অধিকার। আমাদের থানা পুলিশ,ফাঁড়ি পুলিশ সহ বিভিন্ন আইন শৃঙ্খলা বাহিনী মাঠে রয়েছে প্রতিনিহিত।

ময়মনসিংহ সিটির প্রথম নির্বাচনে আজ ভোট ॥ নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা

আজ ৫ মে রবিবার ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। বহুল প্রতিতি সিটির এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পুলিশের প থেকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সিটি ১২৭টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণে নিরাপত্তার ল্েয এক হাজার পুলিশ দায়িত্ব পালন করবেন। এর মধ্যে রেঞ্জ ও জেলা পুলিশের সদস্য রয়েছে। সিটি নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) পদ্ধতিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। জুডিশিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ব্যাটালিয়ন, আনসার ও গ্রাম পুলিশসহ পর্যাপ্ত আইন প্রয়োগকারী সদস্য নিয়োজিত করা হচ্ছে। সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় আওয়ামীলীগের ইকরামুল হক টিটু বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নর্বাচিত। এখন কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সিটির ৩৩টি সাধারণ ওয়ার্ডে ২৪২ জন এবং ১১টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৭০ প্রার্থীসহ মোট মোট ৩১২জন প্রার্থী নির্বাচনে ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হচ্ছেন। নির্বাচনকে কেন্দ্রে কঠোর নিরাপত্তার চাঁদরে ঢাকা হয়েছে ময়মনসিংহ সিটি। বৈরী আবহাওয়া ও কঠোর নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রথম নির্বাচন সুষ্ঠ ও সফল ভাবে সম্পন্ন করতে সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন। সকাল থেকে বৃষ্টির মধ্যে কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে।

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহনের জন্য নির্বাচন কমিশন সকল প্রস্তুতি গ্রহন করেছে। ইভিএম দেখভালের জন্য প্রতিটি কেন্দ্রে ২জন সেনা সদস্য ও একজন এক্সপার্টসহ মোট ৩জন এক্সপার্ট বা বিশেষজ্ঞ নিয়োজিত করা হয়েছে। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা ও আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসার মোঃ আলীমুজ্জামান বলেন, ইভিএম এমন একটি পদ্ধতি, একজনের ভোট আরেকজন দিতে পারবে না, যার মাধ্যমে জাল ভোট দেয়ারও কোন সুযোগ নেই। ইভিএম কার্যকরি করতে ইতেমধ্যেই কেন্দ্রে কেন্দ্রে মগ (অনুশীলন) ভোটিং করা হয়েছে।
ডিআই ওয়ান মোখলেছুর রহমান আকন্দ জানান, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের ৩৩টি ওয়ার্ডে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং ৩ জন মোবাইল ম্যাজিস্ট্রেট, ১৬জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ২২ প্ল্যাটুন বর্ডার গার্ড (বিজিবি) স্টাইকিং, আনসার ব্যাটলিয়ন টীম ৩টি, ৩৩টি ওয়ার্ডে ৩৩টি পুলিশের মোবাইল টীম এবং আরো ১১টি স্টাইকিং ফোর্স মোতায়েন করা হচ্ছে। প্রতি কেন্দ্রে তিনজন করে পুলিশ ও ১০জন আনসার সদস্য সার্বনিক দায়িত্বে থাকবেন। সিটি নির্বাচনে ১২৭ কেন্দ্রের মধ্যে ৯৫টি কেন্দ্র ঝুকি পূর্ণ হওয়ায় অতিরিক্ত পুলিশ নিয়োগ করা হবে। এছাড়াও ডিবি পুলিশের পৃথক দুটি দল সাদা পোষাকে মাঠে থাকবে।

সিটি কর্পোরেশনের ১২৭ কেন্দ্রে, ভোটার ২ লাখ ৯৬ হাজার ৯৩৮জন ভোট প্রদান করবেন।। তন্মধ্যে পুরুষ ১লাখ ৪৬ হাজার ৪৫৮জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৫০ হাজার ৪৮০জন।

ব্রেকিং নিউজঃ