| |

ময়মনসিংহে বিএনপির সভাপতি ওয়ালিদের দাফন সম্পন্ন

আপডেটঃ ১১:৪৩ পূর্বাহ্ণ | জুন ২০, ২০১৯

Ad

ময়মনসিংহ কোতুয়ালী থানা বিএনপির সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের সদ্য বিদায়ী সাবেক চোয়ারম্যান কামরুল ইসলাম মো ওয়ালিদের দাফন সম্প্ন্ন হয়েছে।

বুধবার (১৯ জুন) বাদ যোহর নগরীর আঞ্জুমান ঈদগাহ মাঠে তার নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে তার ইচ্ছা অনুযায়ী নগরীর কালিবাড়ি কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

বিএনপি নেতার জানাজায়, বিএনাপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেন, কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য ডা. মাহবুবুর রহমান লিটন, সাবেক ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আশরাফ হোসাইন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মো হাফিজুর রহমান, জেলা আ,লীগের সভাপতি এড জহিরুল হক, সাধারন সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর আ.লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও নগর বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক আবু ওয়াহাব আকন্দ, নগর বিএনপির সাংগাঠনিক সম্পাদক একেএম মাহবুবুল আলম, যুবদলের সভাপতি রুকনুজ্জামান রুকনসহ বিএনপি ও অংগ সংগঠনের বিপুল সংখক নেতাকর্মী ছাড়াও সর্বস্তরের হাজারো মানুষ অংশ গ্রহন করেন।

এর আগে শহরের হরিকিশোর রায় রোডে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে তার মরদেহ আনার পর দলীয় পতাকায় আবৃত ও ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করে দলীয় নেতেকর্মীবৃন্দ।

উল্লেখ্য, বিএনপি নেতা কামরুল ইসলাম মো ওয়ালিদ মঙ্গলবার রাত আটার সময় ঢাকায় ল্যাব এইড হাসাপতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন ইন্তেকাল করেছেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে লিভারসহ নানা জটিল রোগে দেশে এবং বিদেশে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুকালে স্ত্রী, ছেলে ও এক কন্যা সন্তান রেখে গেছেন তিনি।

তিনি ছিলেন ময়মনসিংহ সদর উপজেলার সদ্য বিদায়ী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপির সহসভাপতি ও কোতুয়ালি থানা বিএনপির সভাপতি।

১৯৮৯ সাল থেকে নিরবচ্ছিন্নভাবে ছাত্রদল ও বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন কামরুল ইসলাম মোহাম্মদ ওয়ালিদ। ১৯৮৯ সালে ছাত্রদলে যোগ দিয়ে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির মাঠে পা রাখেন তিনি।

ছাত্রজীবনে ময়মনসিংহ নাসিরাবাদ কলেজ ছাত্র সংসদে দুবার (১৯৯০ ও ১৯৯২) ভিপি নির্বাচিত হন। সে সময় তিনি একই কলেজে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের আহ্বায়ক ছিলেন। পরে ময়মনসিংহ পৌরসভার বর্ধিত অংশে দুবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়ে ১২ বছর দায়িত্ব পালন করেন। প্রথমবারেই তিনি পৌরসভার প্যানেল চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান।

১৯৯৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত জেলায় মূল দলের বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ২০০৯ সালে দলীয় নির্বাচনে ময়মনসিংহ সদর বিএনপির সভাপতি নির্বাচিত হন। বর্তমান জেলা বিএনপির সহসভাপতিও কামরুল ইসলাম মোহাম্মদ ওয়ালিদ।

২০১৪ সালের উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আশরাফ হোসেনকে বিপুল ভোটে হারিয়ে বিজয়ী হন বিএনপির এই নেতা। তিনি পেয়েছিলেন এক লাখ ১০ হাজার ভোট। আশরাফ হোসেন পান ৬০ হাজার ভোট।

উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনকালে সততার সাথে কাজ করেছেন বিএনপির এই নেতা।