| |

ময়মনসিংহে গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ

আপডেটঃ ১২:০২ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ০৩, ২০১৯

Ad

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের নামাপাড়া এলাকায় এক কিশোরী গৃহকর্মী (১৭) গৃহকর্তার ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওই কিশোরী গত রোববার সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দিলেও গতকাল সোমবার রাত ৯টা পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

ওই কিশোরী সিটি করপোরেশনের নামাপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তার বাবা একজন প্রতিবন্ধী। তারা আট ভাইবোন। কিশোরীর ভাইয়েরা স্যানিটারি মিস্ত্রির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

অভিযুক্ত গৃহকর্তাও (৫৫) নামাপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

অভিযোগের বিবরণে জানা গেছে, গত ১০ মার্চ রাতে ওই কিশোরীকে রুটি বানানোর কথা বলে বাসায় ডেকে নেন গৃহকর্তা। পরে কিশোরীকে ধর্ষণ করেন তিনি। ধর্ষণের কথা চেপে যেতে ওই কিশোরীর গলায় ধারালো দা বসিয়ে হুমকি দেন অভিযুক্ত ধর্ষণকারী। ধর্ষণের কথা কাউকে জানালে ওই কিশোরী ও তার ভাইদের খুন করা হবে এবং প্রতিবন্ধী বাবাসহ পরিবারের সবাইকে বাড়িছাড়া করা হবে বলে হুমকি দেন ধর্ষণকারী।

এরপর গত ২৬ জুন কিশোরীর মা তাকে স্থানীয় গ্রামীণ কল্যাণ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে ডাক্তারি পরীক্ষা করান। পরীক্ষার রিপোর্টে ওই কিশোরী ২৭ সপ্তাহের গর্ভবতী বলে জানান চিকিৎসক।

এ বিষয়ে ওই কিশোরী তার ফুফাতো ভাইকে সঙ্গে নিয়ে গত রোববার সন্ধ্যা ৭টায় কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি অভিযোগ করে। কিন্তু গতকাল রাত ৯টা পর্যন্ত মামলা দায়ের করেনি পুলিশ।

গতকাল সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আশিকুজ্জামান ঘটনা তদন্তে এলাকায় যান। পরে নিশ্চিত করেন, গর্ভবতী কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

এ বিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম বলেন, ‘একজন অফিসার বিষয়টি আমাকে জানিয়েছেন। দোষী ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা নেওয়া হবে।’