| |

“এরশাদের আসনে বঙ্গবন্ধুর খু’নীর স্ত্রীকে প্রার্থী করলো বিএনপি”

আপডেটঃ ২:০৩ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

Ad

এইচ এম এরশাদের মৃ’ত্যুতে শূন্য হওয়া রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে লড়’বেন রিটা রহমান। ২০-দলীয় জোটের শরিক বাংলাদেশ পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান রিটা রহমানকে ধানের শীষের মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। এর আগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও এই আসনে দলীয় প্রার্থীকে স’রিয়ে রিটাকে মনোনয়ন দিয়েছিল বিএনপি।
আজ রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে রিটার মনোনয়নের বিষয়টি জানান বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

*রংপুর-৩ আসন থেকে বিএনপির চারজনসহ মোট ৫ জন মনোনয়ন প্রত্যা’শা করেছিলেন। বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম এ বিষয়ে বৈঠকও করে। বৈঠকে রিটাকে মনোনয়ন দেওয়া নিয়ে অনেকেই আপ’ত্তি তো’লেন। তবে শেষ পর্যন্ত লন্ডনে প’লাতক তারেক জিয়ার নি’র্দেশে রিটাকে ধানের শীষ প্রতীক দিতে সম্মত হন দলের শীর্ষ নেতারা।

*বঙ্গবন্ধুর খু’নী মেজর আনোয়ার পাশা’র স্ত্রী রিটা রহমান

*বঙ্গবন্ধুর এক খু’নী মেজর খায়রুজ্জামানের স্ত্রী রিটা রহমানকে রংপুরে বিএনপির প্রার্থী করা হয়েছে। এরশাদ আমলে মেজর খায়রুজ্জামানকে ঢাকায় দেখা যেতো। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষম’তায় আসছে দেখে সে আবার বিদেশে পালি’য়ে যায়। বিচারে মেজর খায়রুজ্জামানের ফাঁ’সির আ’দেশ হয়েছিল। ওই অবস্থায় বিদেশের পলাত’ক জীবনে সে মা’রা যায়।

*ঘুরেফি’রে বিএনপি দলটির নানাকিছু এমন বঙ্গবন্ধুর খু’নীদের ঘিরেই। মশিউর রহমান জাদু মিয়ার মেয়ে রিটা জাতীয় প্রেসক্লাব ভিত্তিক বিএনপি-জামায়াত ঘরানার সাংবাদিকদের ঘনিষ্ঠ। এক সময় বিজয়নগরে তার একটি চায়নিজ রেষ্টুরেন্ট ছিল। জাদু মিয়াও একজন ভালো রা’জাকার ছিলেন।

*মাওলানা ভাসানী বলতেন, চাউলের দাম বা’ড়লো কিনা তা আমার জাদু না জানলেও ম’দের দাম বা’ড়লো কিনা তা জানে। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত থেকে জাদু মিয়া দেশে চলে আসেন। বিএনপি গঠনকালীন সময়েই অজ্ঞা’ত রো’গে জাদু মিয়া মা’রা যান। তার ছেলে এরশাদের মন্ত্রী শফিকুল গানি স্বপন বিশ্বাস করতেন তার বাবাকে হ’ত্যা করা হয়েছে। জাদু মিয়া মা’রা যাওয়ায় অধ্যাপক বদরুদ্দোজা চৌধুরীকে বিএনপির মহাসচিব নিয়োগ করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ