| |

দু’জনের গালেই টোল পড়ে…

আপডেটঃ 9:40 pm | February 15, 2016

Ad

আলোকিত ময়মনসিংহ : মধ্য দুপুর, হাতিরঝিলের আকাশে তখন চকচকে রোদ খেলা করছে। এর মধ্যেই পাশের পদচারি সেতুতে একটা জটলা চোখে পড়লো। কাছে যাওয়ার পর দেখতে পেলাম একপাশে দাঁড়িয়ে মেকআপ ঠিক করছেন অভিনেত্রী ঈশিকা খান অন্যপাশে আরেক অভিনেত্রী সাফা কবির শর্ট দেয়া নিয়ে ব্যস্ত। তখনই বিষয়টা পরিষ্কার হয়ে গেল। নিশ্চয়ই কোন নাটকের শুটিং? কিন্তু এ দুজনকে তো আগে কখনও একসঙ্গে অভিনয় করতে দেখা যায়নি!

যাই হোক পরিচালকের সম্মতি নিয়ে প্রথমেই ঈশিকার সঙ্গে কথা বলতে শুরু করলাম। তিনিই জানালেন, এখানে মারুফ আহমেদের পরিচালনায় ‘যদি তুমি জানতে’ শিরোনামে নতুন একটি নাটকের চিত্রধারণের কাজ চলছে। আর এতে প্রথমবারের মতো তার সঙ্গে অভিনয় করছেন সাফা কবির।

অভিনেত্রী ঈশিকা খানের মিডিয়ায় ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিলো ফেসবুক দিয়ে। পাঠক হয় তো ভাবছেন এটা কী করে সম্ভব? ঈশিকার মুখ থেকেই শুনুন, ‘এক সময় বন্ধুর তুলে দেয়া ছবি ফেসবুকে পোস্ট দিতাম। আর তা দেখেই কয়েকটি নাটকে অভিনয়ের প্রস্তাব পাই। প্রথমে ইচ্ছে না থাকলেও পরে নিয়মিত কাজ করা শুরু করি। ফলাফল হিসেবে ৬ মাসে ১৫টি বিজ্ঞাপনের কাজ করা হয়ে যায়।’

ঈশিকার কথার মধ্যেই তার পাশে এসে দাঁড়ান সাফা। আমাদের আলাপচারিতার বিষয়বস্তু বুঝতে পেরে তিনি বলেন, ‘আমারও কিন্তু হঠাৎ করেই মিডিয়াতে আসা। শখের বসে এয়ারটেলে বিজ্ঞাপনে কাজ করেছিলাম। সেই থেকে শুরু।’

ঈশিকা ও সাফার ক্যারিয়ার শুরুর গল্পটা যখন একই রকম। তখন তাদের মধ্যে বন্ধুত্বটা কেমন? উত্তরে সাফা বলেন ‘ওর গালে টোল পড়ে, আমার গালেও পড়ে। সে হিসেবে আমরা ডিম্পল ফ্রেন্ড’।

অন্যদিকে ঈশিকা বলেন, ‘যেহেতু আমরা একই সময়ে একই অঙ্গনে কাজ শুরু করেছি। সে হিসেবে আমাদের দুজনের মধ্যে চমৎকার একটা সর্ম্পক রয়েছে।’

ঈশিকা যখন দুজনের বন্ধুত্ব নিয়ে বলছিলেন ঠিক তখনই পরবর্তি শর্ট দেয়ার জন্য সাফার ডাক পড়ে। সেই ফাঁকে ঈশিকা অভিমানের সুরে বলেন, ‘ও আমার ফোন ধরে না’। কিন্তু দূর থেকে বিষয়টা আঁচ করতে পেরে আবারো দৌঁড়ে এসে পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়ে সাফা বলেন, ‘ও আমার নামে নিশ্চয়ই উল্টা পাল্টা বলছে। ওর কথা কিচ্ছু বিশ্বাস করবেন না।’

দুজনের এমন দুষ্টুমি মার্কা সর্ম্পকের শুরুটা হয়েছিলো একটি ফটোশুটে অংশ নিতে গিয়ে। তাতে প্রথমবারের মতো একসঙ্গে কাজ করেছিলেন দুই বান্ধবী। কিন্তু তারপর? ঈশিকা বলেন, ‘আমাদের দুজনের মধ্যে এতো ভালো সর্ম্পক থাকার পরও এতদিন একসঙ্গে অভিনয় করার সুযোগ হয়নি। দুজন দুজনের মতো কাজ করে গিয়েছি। সে হিসেবে এবার মনে হয় আমার বন্ধুত্বটা পূর্ণতা পেলো ‘যদি তুমি জানতে’ নাটকের মাধ্যমে।’

শর্ট দেয়া শেষে ফিরে এসে সাফা যোগ করলেন, ‘এই নাটকেও কিন্তু আমারা দুজন বন্ধু। মূলত বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া পাঁচ বন্ধুর গল্প নিয়েই নাটকটি নির্মাণ করা হচ্ছে।’

ইতিমধ্যে পরিচালক দুজনকে ডেকে পাঠালেন। একসঙ্গে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে হবে। তাই বিদায় নেয়ার সময় দুজনেই বললেন, ‘আমরা ডিম্পল ফ্রেন্ড হিসেবে আজীবন থাকতে চাই’।

ব্রেকিং নিউজঃ