| |

ময়মনসিংহে বিনম্র শ্রদ্ধায় পালন করা হয় জেল হত্যা দিবস

আপডেটঃ ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৪, ২০১৯

Ad

স্টাফ রিপোর্টারঃ আজ ৩রা নভেম্বর বাঙ্গালীর জাতীয় জীবনে এটি একটি কলঙ্গকিত দিন। আজকের এই দিনে ঘাতকের হাতে নিহত হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর বিশ্বস্থ সহচর মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম চার গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব জাতীয় নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমেদ, এএইচএম কামরুজ্জামান এবং ক্যাপ্টেন মনসুর আলীকে এই দিনে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের অভ্যন্তরে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। এর আগে ১৫ই আগষ্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে নির্মমভাবে স্বপরিবারে হত্যার পর এই চার জাতীয় নেতাকে কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

যুদ্ধকালীন সময় সৈয়দ নজরুল ইসলাম বাংলাদেশ সরকারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।
মুক্তিযুদ্ধকালীন মুজিবনগর সরকারের সমধিক পরিচিত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাজউদ্দিন আহমেদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

বঙ্গবন্ধুর অপর ঘনিষ্ঠ সহযোগী এএইচএম কামারুজ্জামান ও ক্যাপ্টেন মনসুর আলী পাকিস্তানি বাহিনীর বিরুদ্ধে গেরিলা যুদ্ধ পরিচালনার ক্ষেত্রে নীতি ও কৌশল নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। জাতির এই গর্বিত সন্তানদের ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে খন্দকার মোশতাকের নির্দেশে আজকের এই দিনে হত্যা করা হয়।

সমস্ত নিয়মনীতি অপেক্ষা করে খুনি মোস্তাক চক্রের নির্দেশে রিহারস্যালদার মুসলেম উদ্দিন কারা প্রকোষ্ঠে ব্রাশ ফায়ার করে হত্যা করে জাতির এই চার বরেণ্য ব্যক্তিকে। বাঙ্গালী জাতিকে নেতৃত্বশূন্য করতেই এই হত্যাকান্ড। ৩রা নভেম্বর তাই একটি শোকাবহ দিন।

সারাদেশব্যাপী আ:লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহ দিনটিকে স্বরণ করে পরম শ্রদ্ধাভরে। তারি ধারাবাহিকতায় সারাদেশের মত ময়মনসিংহেও যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয় এই দিনটিকে। এ উপলক্ষে ময়মনসিংহ জেলা আঃলীগ, মহানগর আঃলীগ ও তার অঙ্গসহযোগী সংগঠনসমূহ, পুলিশ প্রশাসন, ক্রীড়া সংগঠনসমূহ, সৈয়দ নজরুল কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৩রা নভেম্বর শহীদ চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন ও আলোচনা সভা এবং মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ময়মনসিংহ জেলা আঃলীগ বড় কালীবাড়ি তাদের দলীয় কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন ও পুষ্পস্তবকের মধ্য দিয়ে দিবসটির সূচনা করে।

মহানগর আঃলীগ ময়মনসিংহ রেলওয়ের কৃষ্ণচুড়া চত্ত্বর থেকে শোক র‌্যালী নিয়ে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের কলেজ রোডের বাসভবনে সৈয়দ নজরুল ইসলামের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। জেলা আঃলীগও শোক র‌্যালী নিয়ে সৈয়দ নজরুল ইসলামের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে।

এসময় শোক র‌্যালী ও পুষ্পস্তবক অর্পনের নেতৃত্ব দেন জেলা আঃলীগের পক্ষে এড. জহিরুল হক খোকা ও সাধারন সম্পাদক এড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, জেলা আঃলীগ নেতা এড. পিযুষ কান্তি সরকার, মমতাজ উদ্দিন মন্তা, শওকত জাহান মুকুল, আহমেদ হোসেন, আব্দুল কুদ্দুস, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহরিয়ার খান রাহাত, শওকত ওসমান লিটন, মুঞ্জুরুল ইসলাম মুঞ্জু প্রমুখ।

ময়মনসিংহ মহানগর আঃলীগের পক্ষে নেতৃত্ব দেন মহানগর আঃলীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম ও সহ সভাপতি অধ্যাপক গোলাম ফেরদৌস জিল্লু, আনোয়ারুল আলম রিপন, কাউন্সিলর কামাল আহমেদ, মীর শহীদ, কাউন্সিলর শরিফ, কাউন্সিলর রিয়াজ মোর্শেদ, কাজী মঞ্জুরুল মোর্শেদ রাজু, সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। ময়মনসিংহ পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার আবিদ হোসেন শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের বাসভবনে প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জানান।

বিকাল ৩.০০ টায় জেলা আঃলীগের উদ্যোগে তারেক স্মৃতি অডিটরিয়ামে এক আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আঃলীগে সভাপতি এড. জহিরুল হক খোকা, বক্তব্য রাখেন জেলা আঃলীগের সাধারন সম্পাদক এড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপি, জনাবা মনিরা সুলতানা মনি এমপি, আব্দুল কুদ্দুস, আহমেদ হোসেন, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম মিন্টু, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শওকত ওসমান লিটন প্রমুখ।

আলোচনা সভাটি পরিচালনা করেন শওকত জাহান মুকুল। বিকেল ৬.০০ টায় সৈয়দ নজরুল ইসলামের কলেজ রোডের বাসভবনে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে ময়মনসিংহ মহানগর আঃলীগ। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি এহতেশামুল আলম, বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি গোলাম ফেরদৌস জিল্লু, মীর শহীদসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। আলোচনা শেষে দোঁয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ