| |

জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় সরকার পদক্ষেপ নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

আপডেটঃ 10:02 pm | February 17, 2016

Ad

সংসদ  প্রতিবেদক : জঙ্গিবাদ মোকাবেলাসহ জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় সরকার পদক্ষেপ নিয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,  সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, ওয়ারেন্টভুক্ত ও সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ নিয়মিত মামলার আসামি গ্রেফতার, অবৈধ অস্ত্র ও বিস্ফোরক এবং মাদকদ্রব্যসহ সব ধরনের অবৈধ মালামাল জব্দ করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিয়মিত অভিযান ও আইনানুগ ব্যবস্থা অব্যাহত রয়েছে।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকার দলীয় নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. শফিকুল ইসলাম শিমুলের তারকা চিহ্নত প্রশ্ন ৭০ এর জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতীয় মহাসড়কসহ গুরুত্বপূর্ণ সড়ক সমূহের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে জেলা পুলিশ এবং হাইওয়ে পুলিশ সমন্বয়ের মাধ্যমে দায়িত্ব পালন করছে। নাশকতামূলক ও ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিষয়ে প্রাপ্ত গোয়েন্দা তথ্য যাচাই করে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণসহ গ্রেফতার অভিযান চালাচ্ছে।

এছাড়া, নাশকতার মামলায় যারা জামিন পেয়েছে, তারা যেন আবারও এ ধরনের অপতৎপরতা চালাতে না পারে, সেজন্য তাদের নিবিড় নজরদারিতে রাখা হয়েছে। বিদেশি নাগরিকদের বসবাসের এলাকায় চলাচলের রাস্তাসমূহে গোয়েন্দা কার্যক্রম অধিকতর জোরদার করা হয়েছে। ডিপ্লোম্যাটিক এলাকায় গোপন ক্যামেরা (সিসিটিভি) স্থাপনসহ চলমান টহল আরও নিবিড় ও চেকপোস্ট ডিউটি জোরদার করা হয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার যেকোনো ধরনের জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের নীতিতে বিশ্বাস করে। যেকোনো জঙ্গিবাদকে দৃঢ়তার সঙ্গে মোকাবেলায় সরকার বদ্ধপরিকর।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশে ‘আইএস’র কোনো অস্তিত্ব নেই। স্থানীয়ভাবে কতিপয় সংগঠন ইসলামের নামে সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকলেও এদেশে ‘আইএস’র কোনোই অস্তিত্ব নেই।

ব্রেকিং নিউজঃ