| |

কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রক্সি পরীক্ষা, আটক ৩

আপডেটঃ ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ২০, ২০১৯

Ad
স্টাফ রিপোর্টার: মঙ্গলবার ময়মনসিংহের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক প্রথম বর্ষের ‘বি’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় একজনের বিপরীতে অন্যজনের পরীক্ষা দেওয়ার ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে তিনজনকে আটক করা হয়। ছবি : এনটিভি

ময়মনসিংহে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম বর্ষের ‘বি’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় বদলি (প্রক্সি) পরীক্ষা দেওয়ার অভিযোগে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

 আটক শিক্ষার্থীদের কাছে দুটি মোবাইল ফোন, ২৫টি সম্পাদিত ছবি, কয়েকটি পরিচয়পত্র, একাধিক সিমকার্ড, একটি বেসরকারি ব্যাংকের এটিএম কার্ড ও মাদক সেবনের উপকরণ পাওয়া যায়।

আটক তিন শিক্ষার্থী হলেন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৫২ ব্যাচের ছাত্রী নওশিন সায়েরা অদ্রি, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের (আইসিটি) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মো. হিল্লোল বিশ্বাস ও এহসান আহমেদ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর উজ্জ্বল কুমার প্রধান জানান, সোমবার ‘বি’ ইউনিটের বিকেলে শিফটের পরীক্ষা শুরুর আগে দায়িত্বরত স্বেচ্ছাসেবকরা সন্দেহভাজন ওই তিনজনকে আটক করে প্রক্টরিয়াল বডির মাধ্যমে ত্রিশাল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

প্রক্টরিয়াল বডির অভিযোগ, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ৫২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী নওশিন সায়েরা আদ্রি পরীক্ষার্থী ফারহানা তাজমিম কণার হয়ে পরীক্ষা দিতে যান, যার পরীক্ষার রোল ১৮৬৭৭। নওশিন সায়েরা আদ্রির বাড়ি ময়মনসিংহ শহরের আকুয়ায়। তাঁকে ভাড়া করে আনতে সহযোগিতা করেন মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মো. হিল্লোল বিশ্বাস। এ ছাড়া এহসান আহমেদকে আটক করা হয় প্রক্সি পরীক্ষায় ইলেকট্রনিকস যন্ত্রপাতি ব্যবহারের অপরাধে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, আটক হওয়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

ব্রেকিং নিউজঃ