| |

মহানগর আঃলীগ নেতা হাবিব নিষিদ্ধ

আপডেটঃ 1:39 am | November 26, 2019

Ad

স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহ মহানগরের কার্যকরি কমিটির মিটিং এর প্যানায় অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের প্রতিকৃতি কস্টেপ দিয়ে ঢেকে দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে মহানগর আঃলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিবকে ৯নং ওয়ার্ড আঃলীগের সমস্ত সাংগঠনিক কর্মকান্ড থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ৯নং ওয়ার্ডের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব জুলহাস উদ্দিন। ঘটনার বিবরনে প্রকাশ নতুন সদস্য সংগ্রহ ও ৯নং ওয়ার্ডের কার্যকরি কমিটির সভায় অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের ছবি সম্মিলিত একটি প্যানা টানানো হয়। সেই প্যানাটিতে সংযোযিত অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের ছবিটিকে সভা শুরু হওয়ার পূর্বে কষ্টেপ দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। এই ব্যাপারে বিরূপ প্রতিক্রীয়ার সৃষ্টি হয়। পরবর্তীকালে মহানগর আঃলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিবকে এ ব্যাপারে দায়ী করে ৯নং ওয়ার্ডের সাধারন সম্পাদক জুলহাস উদ্দিন সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডে হাবিবুর রহমান হাবিবকে সর্বপ্রকার দলীয় সাংগঠনিক কাজে বিরত থাকার জন্য নিষিদ্ধ ঘোষনা করেন। উক্ত কার্যকরি সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু ও কর্মসূচির উদ্ধোধন করেন ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা আঃলীগের সহ সভাপতি অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান। সভা পরিচালনা করেন ৮নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত কাউন্সিলর মহানগর আঃলীগ নেতা ফারুক হাসান। সভাপতিত্ব করেন ৯নং ওয়ার্ড আঃলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হোসেন। এ ব্যাপারে মহানগর আঃলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব টেলিফোনের মাধ্যমে জানান, তিনি এ কাজটি করেন নি। তার পরেও উনাকে দায়ী করে ৯নং ওয়ার্ডের সাংগঠনিক কাজে ওয়ার্ডের সাধারন সম্পাদকের তাকে নিষিদ্ধ ঘোষনা করেছেন। যা দুঃখ জনক। প্রসঙ্গত উল্লেখ থাকে যে, সাংগঠনিক নিয়ম অনুযায়ী মহানগর আঃলীগের কোন নেতাকে ওয়ার্ড আঃলীগের নিষিদ্ধ ঘোষনা করা অবৈধ বলে জানিয়েছেন মহানগর আঃলীগ নেতা ফারুক হাসান।

ব্রেকিং নিউজঃ