| |

ডা. শহীদ মিলন দিবস পালিত

আপডেটঃ ১:৪৯ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ২৮, ২০১৯

Ad

স্টাফ রিপোর্টারঃ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, স্বেচ্ছাসেবী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্যে দিয়ে পালিত হয়েছে শহীদ মিলন দিবস।
বুধবার (২৭ নভেম্বর) মিলনের ২৯তম শাহাদত বার্ষিকী। এ উপলক্ষে সকালে ডা. মিলনের সমাধিতে প্রথমে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ডা. মিলনের মা সেলিনা আকতার ও তার বোন।
পরে সকাল সাড়ে ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল চত্বরে ডা. মিলনের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা। এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও এনামুল হক শামীম, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নহার লাইলী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট রিয়াজুল কবির কাওছার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া ডা. মিলনের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), সাম্যবাদী দল, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ, বাম গণতান্ত্রিক জোট, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, ঢাকা মেডিকেল কলেজ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ শিক্ষক সমিতি, বিএনপি এবং ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৩৪ ব্যাচের মিলনের ব্যাচের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন।
উল্লেখ্য, ১৯৯০ সালের ২৭ নভেম্বর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন চলাকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে সামরিক শাসক এরশাদের পেটোয়া বাহিনীর গুলিতে মারা যান তৎকালীন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) যুগ্ম মহাসচিব এবং জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) নেতা ডা. শামসুল আলম খান মিলন।

ব্রেকিং নিউজঃ