| |

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা ও ফুটপাত দখল করে হোটেলের সামগ্রী রাখায় জরিমানা

আপডেটঃ 8:09 pm | December 17, 2019

Ad

অদ্য ১৭ ডিসেম্বর -২০১৯ ময়মনসিংহ নগরীর বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমান অাদালত। শহরের চরপাড়া সহ বিভিন্ন স্থানে ফুটপাত অবৈধ দখলকারী ও ফুটপাত দখল করে অবৈধভাবে হোটেলের সামগ্রী রাখা হোটেলগুলিতে অভিযান চালানো হয়। চড়পাড়া এলাকার একটি হোটেলকে ফুটপাত দখল করে হোটেলসামগ্রী রাখার দায়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব-উল-আহসান এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন।

এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন- ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের স্যানিটারী ও খাদ্য কর্মকর্তা দীপক মজুমদার, সেনিটারী ইন্সপেক্টর ইকবাল হোসেন,সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফজলুল হক উজ্জল, পেশকার আবুল হাসিমসহ সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তাগণ।

এসময় তিনি সেখানে ফুটপাত দখল করে বিভিন্ন সামগ্রী রাখা,ফুটপাত দখল ও অবৈধ দোকান বসানোর অভিযোগে অবৈধ দখলকারী দোকানে অভিযান পরিচালনা করেন এবং বিভিন্ন বিষয়ে এলাকাবাসীর সঙ্গেও কথা বলেন।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের স্যানিটারী ও খাদ্য কর্মকর্তা দীপক মজুমদার সাংবাদিকদের জানান-ময়মনসিংহ নগরীর বিভিন্ন রাস্তা বেআইনিভাবে দখলে নিয়ে কিছু ফুটপাতের দোকানদাররা দোকান বসানোর ফলে নগরীতে যানযট লেগেই থাকে, অপরদিকে সিটি কর্পোরেশনের সরকারী সম্পদ অবৈধ ভাবে দখলে নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের অনুমতি বিহীন মার্কেট নির্মান করে রাখায় সরকার ও সিটি কর্পোরেশনের সম্পদ অবৈধ দখলকারীদের কবলে চলে যাচ্ছে। তাই এসব অবৈধ মাকেট মালিক তথা ফুটপাত দখলকারীদের একাধিক বার নোটিশ প্রদান করার পরেও অবৈধ স্থাপনা না সরানোর ফলে সরকারী সম্পদ উদ্ধার করতে নিয়মিত ও ধারাবাহিক অভিযানের অংশ হিসাবে এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা হয়েছে। তিনি বলেন এই অভিযান ধারাবাহিক ভাবে চলবে।
এদিকে ময়মনসিংহ নগরীর যানযট নিরসনে ফুটপাত থেকে দোকানপাট অপসারণ করা তথা ভ্রাম্যমান অভিযান পরিচালনা করায় সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটুসহ ম্যাজিস্ট্রট ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ময়মনসিংহ বাসী।

ব্রেকিং নিউজঃ