| |

জামালপুরে সন্ত্রাসী হামলার শিকার সাংবাদিক গ্রেপ্তার ছাত্রলীগ নেতা

আপডেটঃ 11:15 am | December 20, 2019

Ad

মোঃ রিয়াজুর রহমান লাভলু ঃ  জামালপুর ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার সাংবাদিক শেলু আকন্দ গুরুতর জখম অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হলে পুলিশ গ্রেপ্তার করেন জেলা ছাত্রলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম খান রাকিবকে। মামলার অন্য আসামিরা পলাতক। একটি সূত্র জানায়, শেলু আকন্দ বুধবার রাতে শহরের দেওয়ানপাড়ায় নিজ বাসা থেকে বের হয়ে ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে হাটছিলেন। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের জন্য তিনি নিয়মিত বাইপাস রাস্তায় হাটাহাটি করেন। রাত আনুমানিক ১১টার দিকে কয়েকজন সন্ত্রাসী তার ওপর হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা লোহার পাইপ দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে তার দুটি পা ভেঙে দেয়। এক পর্যায়ে তিনি অচেতন হয়ে পড়লে সন্ত্রাসীরা মৃত ভেবে তাকে ফেলে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে জামালপুর সদর হাসপাতালে নেন। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় শেলু আকন্দকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় শেলু আকন্দের ভাই মোঃ দেলোয়ার হোসেন আকন্দ বৃহস্পতিবার বিকেলে জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে শহরের দেওয়ানপাড়া এলাকার তুষার খান, তুহিন খান, রাকিবুল ইসলাম খান রাকিব, স্বজন খানসহ বেশ কয়েকজনকে। পুলিশ আসামিদের মধ্যে ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল ইসলাম খান রাকিবকে গ্রেপ্তার করেছে। রাকিব জামালপুর পৌরসভার কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুর ছেলে ও জেলা ছাত্রলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক। আহত সাংবাদিক শেলু আকন্দ দৈনিক বাংলাবাজার পত্রিকার জামালপুর প্রতিনিধি। এছাড়াও তিনি জামালপুর থেকে প্রকাশিত দৈনিক পল্লীকণ্ঠ প্রতিদিনের স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করেন। জামালপুর সদর সাবরেজিস্ট্রি অফিসে দলিল লেখক হিসেবেও কাজ করেন শেলু আকন্দ। তিনি জানান, সন্ত্রাসীরা তাকে পেটানোর সময় বলেছে -‘মামলার সাক্ষী হইছস না, সাক্ষী দিবি, তর সাক্ষী হওয়ার সাধ মিটাইতাছি। হামলায় ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল ইসলাম খান রাকিব ও তার সহযোগী তুষার খান, স্বজন খান ও তুহিন খানসহ ১০/১২ জন অংশ নেয় বলে তিনি জানান। জামালপুর সদর থানার ওসি মো. সালেমুজ্জামান বলেন, সাংবাদিক শেলু আকন্দের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। এজাহারভূক্ত সাতজন আসামির মধ্যে রাকিবুল ইসলাম খান রাকিব নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ