| |

রাত পোহাতেই ময়মনসিংহে মা-মেয়ে খুনের ঘাতক আটক

আপডেটঃ 12:28 am | January 17, 2020

Ad
ময়মনসিংহ সদরের খাগডহরে চাঞ্চল্যকর মা-মেয়ে খুনের ঘটনার রাত পোহাতেই যৌথ অভিযানে সফলতার চমক দেখিয়েছে পুলিশ। ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল ইসলাম ও জেলা গোয়েন্দা সংস্থার অফিসার ইনচার্জ শাহ মোঃ কামাল আকন্দ যৌথ অভিযান চালিয়ে ঘাতক স্বামী শফিকুল ইসলাম শাহীনকে গতকাল আটক করে।
এর আগ ঘটনার আশপাশ এলাকা শাহীন চুরখাই এলাকায় আত্মহত্যা করেছে বলে গুঞ্জনও চলছিল।
ঘটনার বিবরনে প্রকাশ, গত পরশু দিনের বেলা ময়মনসিংহ শহরের খাগডহর ঘুন্টি এলাকায় ফকির বাড়িতে পারিবারিক কলহে খুন হয় শফিকুল ইসলামের স্ত্রী রুমা আক্তার (৩৮) ও মেয়ে নাফিয়া আক্তার(৯)। পরে অপর মেয়ে সাদিয়া আক্তার লাবণ্যকে বাড়িতে এনে তাকেও হত্যার চেষ্টা চালায় শফিকুল ইসলাম শাহীন। মেয়ে সাদিয়া আক্তার লাবণ্যকে স্বামীর বাড়ি থেকে মোবাইফোনে ডেকে এনে হত্যা করতে না পারলে সে প্রতিবেশীদের সহায়তায় বেচে যায়। লাবন্যকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বুধবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার খাগডহর ইউনিয়নের ঘুন্টি ফকিরবাড়িতে এ মর্মান্তিক ঘটনায় পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তাসহ র‌্যাব, পিবিআই, সিআইডি’র ক্রাইমসীন, কোতোয়ালী থানা পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা সংস্থা সকল বিভাগই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। প্রাথমিক তদন্ত শেষ করেই প্রতিযোগিতা মূলক ভাবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার বিভিন্ন ইউনিট ঘাতককে ধরতে উঠেপড়ে লেগে যান।
নবাগত পুলিশ সুপার আহমার উদজ্জামান এর নির্দেশে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল ইসলাম ও জেলা গোয়েন্দা সংস্থার অফিসার ইনচার্জ শাহ মোঃ কামাল আকন্দ উভয়ের পৃথক পৃথক টিম নিয়ে সারা রাত বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন। অবশেষে রাত পোহাতেই উভয় টিমের সম্মিলিত অভিযানে শফিকুল ইসলাম শাহীনকে গতকাল ঈশ্বরগজ্ঞ থেকে আটক করে।

ব্রেকিং নিউজঃ