| |

ভোট পেছাতে অনশনে ছাত্ররা

আপডেটঃ 12:20 pm | January 18, 2020

Ad

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন সরস্বতী পূজার দিনে না করে অন্য কোনো তারিখে করার দাবিতে গতকাল বৃহস্পতিবার আমরণ অনশনে বসেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অর্ধশত শিক্ষক-শিক্ষার্থী। কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করার ঘোষণা দিয়েছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতিও অন্য কোনো দিন ভোট গ্রহণের দাবি জানিয়েছে। একই দাবিতে মানববন্ধন করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সিটি নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের দাবিতে বেশ কয়েক দিন ধরেই আন্দোলন করছেন ঢাবির শিক্ষার্থীরা। ডাকসুর এজিএস ও ঢাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন ও জগন্নাথ হল সংসদের নেতৃত্বে এই আন্দোলন হচ্ছে। শাহবাগ মোড় অবরোধ, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। সর্বশেষ বুধবার নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভবন ঘেরাও করতে গেলে শাহবাগে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন। প্রতিবাদে ও দাবি আদায়ে গতকাল দুপুর ২টা থেকে ঢাবির রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আমরণ অনশনে বসেন শিক্ষার্থীরা। এতে বেশ কয়েকজন শিক্ষকও অংশ নিয়েছেন। তাঁরা হলেন জগন্নাথ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মিহির লাল সাহা, সাবেক প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক অসীম সরকার, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দীন, সংস্কৃত বিভাগের চেয়ারপারসন নমীতা মণ্ডল, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রতন চন্দ্র ঘোষ। এ ছাড়া সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ডিন অধ্যাপক সাদেকা হালিম, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ওয়াহেদুজ্জামান চাঁন, ডাকসুর সদস্য রাইসা নাসের, মাহমুদুল হাসানসহ ছাত্রলীগের বিভিন্ন হলের নেতারা অনশনে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন।

জগন্নাথ হল সংসদের ভিপি উৎপল বিশ্বাস বলেন, ‘সরস্বতী পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করে পূজা উৎসবকে ছোট করে দেখা হয়েছে। নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন না করা হলে ধরে নেব এ দেশে ধর্মের স্বাধীনতা নেই। আর যে দেশে ধর্মের স্বাধীনতা নেই, সে দেশ অসাম্প্রদায়িক নয় বলে আমরা মনে করি। তাই দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাব।’

ইসিকে বাধ্য করবে ছাত্রদল : পূজার দিন ভোট ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত বলে মন্তব্য করেছেন ছাত্রদল সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন। তিনি বলেন, কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে ইসিকে নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনে বাধ্য করবে ছাত্রদল। গতকাল রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সরস্বতী পূজার দিনে সিটি নির্বাচনের দিন নির্ধারণ করায় এক প্রতিবাদ সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে সংগঠনের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলের নেতৃত্বে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে ছাত্রদল।

ঢাবি শিক্ষক সমিতির বিবৃতি : গতকাল সন্ধ্যায় ঢাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মাকসুদ কামাল ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক নিজামুল হক ভুইয়া স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে ঢাকার দুই সিটির ভোটগ্রহণ সরস্বতী পূজার দিনে না করে অন্য কোনো দিন করার দাবি জানানো হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, ৩০ জানুয়ারি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসব বিদ্যার দেবী ‘শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা’ উদ্যাপিত হবে। এ উৎসব সাধারণত বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উদ্যাপিত হয়ে থাকে। এদিন সিটি নির্বাচনের তারিখ ঘোষিত হওয়ায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মনে আঘাত হেনেছে এবং সর্বস্তরের মানুষের মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

জবিতে মানববন্ধন : গতকাল ‘সচেতন শিক্ষার্থীবৃন্দ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়’ ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্ত চত্বরে মানববন্ধন করা হয়। এ সময় শিক্ষার্থী অরূপ গোপ, মিথুন রায় ও অমিত সরকার বলেন, পূজা তিথি অনুযায়ী নির্ধারিত হয়। চাইলে নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করা যায়, কিন্তু পূজার সময়সূচি পরিবর্তন করা যায় না। তাই তাঁরা আশা করেন, ইসি ভোটের তারিখ পিছিয়ে পূজা ও ভোটাধিকার প্রয়োগের সুষ্ঠু ব্যবস্থা করবে।

ব্রেকিং নিউজঃ