| |

কর্তিত দৃশ্য সংযোজনের দায়ে এখনো নিষিদ্ধ দুই ছবি

আপডেটঃ 3:23 pm | February 20, 2016

Ad

সেন্সর বোর্ডের কর্তিত দৃশ্য এবং সেন্সরবিহীন অশ্লীল দৃশ্য প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনের অভিযোগে ২০১৫ সালের মাঝামাঝি সময়ে চারটি চলচ্চিত্রের সেন্সর সনদপত্র সাময়িকভাবে বাতিল করেছিলো সেন্সর বোর্ড।

সেন্সর সনদ বাতিল হওয়া ছবিগুলোর মধ্যে ছিল শাহ আলমগীর বাচ্চু প্রযোজিত ও অপূর্ব রানা পরিচালিত ‘খুনী বিল্লা’, খোরশেদ আলম খসরু প্রযোজিত ও শাহিন সুমন পরিচালিত ‘নগদ’, মঈন বিশ্বাস প্রযোজিত ও পরিচালিত ‘পাগল তোর জন্য রে’ এবং মো. আব্দুল হালিম প্রযোজিত ও মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘কিছু আশা কিছু ভালবাসা’।

ছবিগুলোর মধ্যে ‘কিছু আশা কিছু ভালবাসা’ এবং ‘পাগল তোর জন্য রে’ ছবি দুটি থেকে সেন্সর বোর্ডের বাদ দেওয়া দৃশ্য সংযোজন করে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জুরি বোর্ডের কাছে জমা দেওয়া হয়। জুরি বোর্ডের সদস্যরা পরীক্ষাকালে এ ছবি দুটিতে বাদ দেওয়া দৃশ্য দেখতে পান। যার কারণে চলচ্চিত্র দুটি নিষিদ্ধ করেছিলেন সেন্সরবোর্ড।

এদিকে ‘খুনি বিল্লা’ ও ‘নগদ’ ছবি দুটিকে বাদ দেওয়ার কারণ সম্বন্ধে উল্লেখ করা হয়েছিল- সেন্সর বোর্ড থেকে কর্তন করা অশ্লীল দৃশ্য সংযোজন করে প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শন এবং অননুমোদিত পোস্টার ও ফটোসেট ব্যবহার করে প্রচারণা চালানো।

এ সম্পর্কে সেন্সর বোর্ডের এক কর্মকর্তা ঢালিউড২৪-কে নিশ্চিত করেছেন যে, অপূর্ব রানার ‘খুনি বিল্লা’ ও শাহিন সুমনের ‘নগদ’ ছবি দুটিকে পুনরায় ছাড়পত্র দিলেও এখনো আটকে আছে মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘কিছু আশা কিছু ভালবাসা’ ও মঈন বিশ্বাসের ‘পাগল তোর জন্য রে’।’ ছবি দুটি কোনো দিন ছাড়পত্র পাবে কিনা তথ্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার অজানা।

ব্রেকিং নিউজঃ