| |

এক মাসের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সম্মেলন করতে তৃণমূলে আ.লীগের চিঠি

আপডেটঃ ১১:০২ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০২০

Ad

সদ্য সমাপ্ত ঢাকার দুই সিটির নির্বাচন শেষে সাংগঠনিক কার্যক্রম শক্তিশালী করতে মাঠে নামছে আওয়ামী লীগ। শুরু হচ্ছে দলের তৃণমূল সম্মেলন কার্যক্রম। আগামী ৬ মার্চের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ সাংগঠনিক উপজেলা, থানা, পৌরসভা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ও ইউনিটগুলোর সম্মেলন শেষ করার নির্দেশনা দিয়ে তৃণমূলে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। এছাড়া সারাদেশে ‘সদস্য সংগ্রহ অভিযান’ জোরদার করতেও তৃণমূলকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ওই চিঠিতে।জাতীয় সম্মেলনের আগে বাকি থাকা মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা সম্মেলনগুলোও শুরু করতে বলা হয়েছে। ১ মার্চ থেকে নতুন পর্যায়ে দলের সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হতে যাচ্ছে। এ ছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র থেকে তৃণমূলকে পাঠানো এই চিঠির তথ্য নিশ্চিত হয়েছে।

দলীয় সূত্রগুলো বলছে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর আয়োজন মুজিববর্ষ সামনে রেখে দলকে ঢেলে সাজাতেই তৃণমূলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিগুলোকে সম্মেলন আয়োজনে তাগাদা দিচ্ছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। পাশাপাশি দলের সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রমকেও গতিশীল করার দিকে মনোযোগী হচ্ছে দলটি।

চিঠির নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সারাদেশে সদস্য সংগ্রহ অভিযান জোরদার করতে আগামী ১ মার্চ থেকে সদস্য বই, ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্র সংগ্রহ করতে হবে দলের কেন্দ্রীয় দফতর থেকে। চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, যেসব সাংগঠনিক জেলার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে, দ্রুততম সময়ে সেসব জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে কেন্দ্রীয় দফতরে জমা দিতে হবে। পাশাপাশি যেসব সাংগঠনিক জেলায় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি, বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেসব জেলায় সম্মেলন শেষ করতে হবে।

চিঠিতে আরও বলা হয়, মেয়াদোত্তীর্ণ যেসব সাংগঠনিক উপজেলা/থানা/পৌর বা ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড ইউনিট রয়েছে, সেগুলোর সম্মেলন আগামী ৬ মার্চের মধ্যে শেষ করতে হবে। একইসঙ্গে মুজিববর্ষ উদযাপনের জন্য কেন্দ্রের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ কর্মসূচি হাতে নিতে হবে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, গত ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় কাউন্সিল ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সফলভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতীয় কাউন্সিল সুষ্ঠুভাবে শেষ হওয়ার পর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সারাদেশে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করতে নির্দেশ দিয়েছেন। সেই অনুযায়ী আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের সাংগঠনিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত বছরের ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের আগে দলের মেয়াদোত্তীর্ণ তৃণমূল কমিটিগুলোর সম্মেলন কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। গত বছর অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৭৮টি সাংগঠনিক জেলার মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ ২৯টির সম্মেলন হয়েছে। ৪৭টি সাংগঠনিক জেলায় সম্মেলন এখনও বাকি রয়েছে। আর দুটি জেলায় ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত সম্মেলন অথবা কমিটি গঠনের পর মেয়াদ এখনও বাকি রয়েছে। এ অবস্থায় জাতীয় সম্মেলন এবং পরে ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার কারণে সম্মেলন কার্যক্রম সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছিল।

ব্রেকিং নিউজঃ