| |

ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদীর আগমনকে স্বাগত জানাবে বাংলাদেশের জনগণ।। বেগম রওশন এরশাদ।।

আপডেটঃ 10:22 pm | March 08, 2020

Ad

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ এমপি বলেন- মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে স্বাগত জানাবে বাংলাদেশের জনগণ। ভারত বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের মিত্র। বাংলাদেশ বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র, ভারতের কাছে কৃতজ্ঞ। বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমন উপলক্ষে এক বিবৃতিতে বিরোধী দলীয় নেতা এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে-দেশবাসীকে প্রতিরোধ নয় ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে স্বাগত জানাতে আহ্বান জানিয়েছেন বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ। দিল্লির সহিংসতাকে দুঃখজনক ঘটনা আখ্যা দিয়ে শনিবার বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, নরেন্দ্র মোদি বিজেপির নেতা হিসেবে নয় মুক্তিযুদ্ধের মিত্রদেশ ভারতের সরকার প্রধান হিসেবে তিনি বাংলাদেশে আসছেন। তাকে দেশবাসী স্বাগত জানাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন রওশন এরশাদ।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আগামী ১৭ মার্চ ঢাকায় আসবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। দিল্লির সাম্প্রদায়িক সহিংসতার পর মুজিববর্ষে মোদির উপস্থিতির বিরোধিতা করছে ডান, বামসহ বিভিন্ন মতাদর্শের দল ও সংগঠন। তাদের অভিযোগ, দিল্লিতে ‘গুজরাট মডেলে’ মোদি সরকারের মদদে মুসলমানদের ওপর বেছে বেছে হামলা হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে মোদিকে আমন্ত্রণের বিষয়টি পুনর্বিবেচনার দাবি তুলেছে বিএনপি।

তবে সংসদের বিরোধীদল জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদ সরকারের অবস্থানকেই সমর্থন করেছেন। আওয়ামী লীগ নেতারা বলেছেন, বিজেপি নেতা হিসেবে নয় মুক্তিযুদ্ধের প্রধান মিত্রদেশ ভারতের প্রতিনিধি হয়ে আসছেন মোদি।

রওশন এরশাদ বিবৃতিতে বলেছেন, দিল্লির সাম্প্রতিক ঘটনায় ভারতের বিবেকবান মানুষ দল-মত, ধর্মের ঊর্ধ্বে উঠে সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছে, মুসলমানদের সুরক্ষায় এগিয়ে এসেছে, তা মনে রাখতে হবে। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ হিসেবে দিল্লির ঘটনায় বাংলাদেশে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে এ কথা সত্য। কিন্তু বিশ্বমানবতার প্রতি বরাবরের মত আস্থা রেখে আমাদের ধৈর্য্য ধারণ করা উচিত।

রওশন এরশাদ বলেছেন, নরেন্দ্র মোদির সফরকে ধর্মীয় অনুভূতির সাথে মিলিয়ে প্রতিবাদ, প্রতিরোধের ডাক না দিয়ে উচিত হবে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে পরীক্ষিত বন্ধু ভারতের সরকারের প্রধানকে স্বাগত জানানো। অতিথি পরায়নতার সুনাম অক্ষুন্ন রেখে মানবতার পরিচয় তুলে ধরতে বিরোধীদলীয় নেতা দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

দিল্লির সহিংসতাকে দুঃখজনক আখ্যা দিয়ে বিরোধীদলীয় নেতা বলেছেন, কোনো একটি দিক বিবেচনায় নিয়ে ভারতের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক নির্ধারিত হয় না। সার্বিক পরিবেশ ও ভূ-রাজনৈতিক অবস্থা বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে হয়। মোদির ঢাকা সফর উষ্ণ ও আন্তরিক হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন রওশন এরশাদ।

ব্রেকিং নিউজঃ