| |

চার দেশের নাগরিকদের অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করল বাংলাদেশ

আপডেটঃ 9:27 pm | March 09, 2020

Ad

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দেশগুলোর মধ্যে চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, ইরান ও ইতালির নাগরিকদের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে বাংলাদেশ। পাশাপাশি এসব দেশের বিশেষ অঞ্চল (যেখানে বেশি আক্রান্ত) থেকে আগত দেশি-বিদেশি নাগরিকদের এখন থেকে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।

সোমবার (৯ মার্চ) বিকেলে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও মোকাবিলায় গঠিত জাতীয় কমিটির সভা শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ কথা জানান। তিনি এ কমিটির সভাপতি।

গত রোববার (৮ মার্চ) সরকারের আইইডিসিআরের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে জানানো হয়, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ তিনজন ছাড়া আরও দুজনকে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। আক্রান্ত তিনজনের মধ্যে দু’জন ইতালিফেরত। তৃতীয় জন এদেরই মাধ্যমে সংক্রমিত হয়েছেন।

সোমবার দুপুরের প্রতিষ্ঠানটির সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আরও চারজনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। তবে পরীক্ষায় কারোর মধ্যেই করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। তার মানে এ পর্যন্ত সর্বমোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা তিনজনই।

ওই সংবাদ সম্মেলনের পর করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও মোকাবিলায় গঠিত জাতীয় কমিটির সভা শেষে মন্ত্রী বলেন, বিদেশফেরত বিশেষ করে করোনাভাইরাসে বেশি আক্রান্ত ইতালি ও দক্ষিণ কোরিয়ার মতো দেশগুলো থেকে আসা বাংলাদেশিদের বিশেষভাবে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। তাদের পরীক্ষার মাধ্যমে প্রয়োজন হলে কোয়ারেন্টাইনে (সংক্রমণরোধে আলাদাভাবে) রাখার ব্যবস্থাও নেয়া হবে। আক্রান্ত দেশগুলোর মধ্যে চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, ইরান ও ইতালির নাগরিকদের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তবে এসব দেশে ফ্লাইট বন্ধের আপাতত কোনো পরিকল্পনা নেই।

অবশ্য, চীনের উহান শহর থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২ ফেব্রুয়ারিই সেদেশের নাগরিকদের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধ করে দেয় বাংলাদেশ। সোমবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইতালি, ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকদের ব্যাপারেও একই ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানালেন।

ব্রেকিং নিউজঃ