| |

মাহফুজ-মতিউরকে একহাত নিলেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেটঃ 7:18 pm | February 22, 2016

Ad

আলোকিত ময়মনসিংহ  : দেশে দুই শীর্ষস্থানীয় দৈনিকের দুই সম্পাদককে এক হাত নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্প্রতি ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারের সম্পাদক মাহফুজ আনামের এক স্বীকারোক্তির পরিপ্রেক্ষিতে এমন কড়া মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

এক এগারোর পরিস্থিতি উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা বলেন, ওই সময় ডিজিএফআই শক্তিশালী হতে চেয়েছিল। ব্রিগেডিয়ার আমিন ও বারী তারাই দেশ চালাতো। ব্যবসায়ীদের ধরে টাকা নেয়া, হয়রানি করা এসব তারা করতো। তারা যেসব পাঠাতো ওই সম্পাদক তা ছেপে দিতেন।

তিনি আরো বলেন, তাদের পত্রিকায় লেখা থাকে নির্ভিক সাংবাদিকতা। নির্ভিক সাংবিাদিকতা কাকে বলে? ডিজিএফআই’র তথ্য উনি ছেপে দিলেন। প্রশ্ন হচ্ছে, তাদের সাথে ওনার কী সখ্যতা ছিল। তিনি এদের হাতে বিক্রি হয়েছিলেন, অথবা মাইনাস টু ষড়যন্ত্রের সাথে ওই সম্পাদকদ্বয় জড়িত ছিলেন? যদি ভয়ে লিখে থাকেন তাহলে তো নির্ভিক থাকলো না। তারা যদি ভুল স্বীকার করেন তাহলে কিছু করার নেই। আর যদি ষড়যন্ত্র করে থাকেন তাহলে দেশের বিরুদ্ধে গণতন্ত্র ধ্বংসকারী, ষড়যন্ত্রকারীদের বিচার হয়েছে সংবিধান অনুযায়ী এদেরও তেমনি বিচার হবে। কোন পথ বেছে নিবেন?

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা এমনভাবে লেখে যেন আমাকে দুর্নীতিবাজ বানিয়েই ছাড়বে। আমরা আমাকে দুর্নীতিবাজ বানাতে চেষ্টা করেছেন। মাহফুজ আনাম, বিশ্বব্যাংক আপনার পিতৃস্বরূপ তারাও আমাকে দুর্নীতিবাজ বানাতে পারেনি।

তার বিরুদ্ধে বহু মামলা হয়েছে সেটা নিয়ে বহু হা-হুতাশ দুঃখ। আমি তখন এ কথা বলেছিলাম গাইয়ের বাছুর নাকি বাছুরের গাই। এখন যেন সবাই বাছুরের গাই হয়ে গেছে। যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শহীদ দিবনের আলোচনা সভায় এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

ব্রেকিং নিউজঃ