| |

করোনা দুর্যোগের আজকের এ দুঃসময়ে মেয়র টিটুকে পেয়ে নগরবাসীর প্রশংসা

আপডেটঃ 3:21 pm | April 01, 2020

Ad

মো. মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী, ময়মনসিংহঃ করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সারা দেশের মত ময়মনসিংহেও চলছে অঘোষিত লকডাউন। সরকারি নির্দেশনা মেনে নিজ ঘরে অবস্থান করছে মানুষ। পাশাপাশি বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও যানবাহন চলাচল। এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন দিনমজুর, শ্রমিক, রিকশাচালকসহ দুস্থ ও অসহায় পরিবারের সদস্যরা। এর ফলে খাদ্য সংকটও দেখা দিয়েছে তাদের।

এ অবস্থায় তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু। সচেতনতামূলক লিফলেট, সাবান, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, দোকানের সামনে সাদা রঙের এই বৃত্ত এঁকে দিচ্ছন এবং নগরীর সকল সড়কে নিয়মিত জীবানুনাশক মিশ্রিত পানি দেওয়া হচ্ছে।

কিন্তু দুঃখের বিষয় প্রাণঘাতি বৈশ্বিক মহামারী আজকের দুঃসময়ে অনেক ওয়ার্ড কাউন্সিলরকেই আমরা সেভাবে তৎপর দেখছি না। বিষয়টি নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মাঝে ক্ষোভ আছে, প্রশ্ন আছে’। তবে নাগরিকরা একই সময়ে বর্তমান সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটুর প্রশংসা করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, বর্তমান করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধে সারা দেশে মাঠে আছেন প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি এবং বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের ব্যক্তিবর্গ। অনেকে জনসচেতনতামূলক কাজ করছেন। অনেকে প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করছেন। অনেকে দরিদ্র ও অসহায়দের খাবারের ব্যবস্থা করছেন। ময়মনসিংহেও এমন কার্যক্রম চোখে পড়ে। কিন্তু অবাক করা বিষয় হলো নবগঠিত ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের ৩৩টি ওয়ার্ডের অনেক কাউন্সিলরদের কার্যক্রম তেমনভাবে চোখে পড়ছে না। হয় তাদের কাজ আড়ালে থাকছে। নয়তো তারা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছেন না।

সূত্র গুলো জানায়, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মোট ৩৩টি ওয়ার্ডে ৩৩ জন পুরুষ কাউন্সিলর এবং সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলরসহ ৪১ জন জনপ্রতিনিধি আছেন। এদের মাঝে কেউ কেউ পুরানো। আবার কেউ কেউ নতুন। নির্বাচনের আগে এদের অনেকেই কোটি টাকা খরচ করে নির্বাচন করেছেন বলে গুঞ্জন আছে। আবার অনেকের আর্থিক অবস্থাও বেশ ভালো। অনেকে এলাকার প্রভাবশালী ও ধনাঢ্য ব্যক্তি। কিন্তু বিস্ময়ের বিষয় হলো প্রাণঘাতি বৈশ্বিক মহামারী আজকের এ দুঃসময়ে অনেক কাউন্সিলরদেরই নড়াচড়া কম। ৬/৭ জন সক্রিয় আছেন। বাকীরা কি করছেন বা আদৌ কিছু করছেন কি না তা এলাকাবাসী অবহিত নন। অথচ ময়মনসিংহ সিটি মেয়রের সক্রিয় ভূমিকা দল মত নির্বিশেষে প্রশংসা কুড়াচ্ছে।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, আমরা যেভাবে ঘরে থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছি ঠিক একইভাবে বিশেষ প্রয়োজনে যারা ঘর থেকে বের হয়ে শহরে এসে প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী কেনার সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য দোকানে দোকানে বৃত্ত এঁকে দেওয়া হয়েছে।

এক কথায় তিনি নগরবাসীকে অনুরোধ করে বলেন, মারাত্মক ছোয়াচে করোনা ভাইরাসের সংক্রামন রোধে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হবেন না। নিজেকে ভালবাসুন, ব্যক্তিগত দূরত্ব বজায় রাখুন।

মানুষ মানুষের জন্য কথাটি আজ স্বার্থক। মহান সৃষ্টিকর্তা তোমার সৃষ্টির সেরা মানব আজ মানুষ হয়ে উঠেছে। তুমি আমাদের ক্ষমা করো। তুলে নাও তোমার বান্দাদের উপর থেকে করোনা নামক মৃত্যু কুপকে।

ব্রেকিং নিউজঃ