| |

তারাকান্দায় সরকারী চাল উদ্বার ॥ কার চাউল কেউ স্বীকার করছে না

আপডেটঃ 12:12 am | April 23, 2020

Ad

মো: নাজমুল হুদা মানিক ॥ ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার গালাগাঁও ইউনিয়নের গালাগাঁও গ্রাম হতে সরকারী চাল উদ্বার করা হয়েছে। তারাকান্দা থানা পুলিশ বলছে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পরে থাকা ২০ বস্তা চাউল উদ্বার করা হয়েছে। তবে এলাকাবাসীর অভিযোগ ‘লুকিয়ে রাখা’ ১০ টাকার কমপক্ষে ৫০ বস্তা চাল ছিল। কিছু চালের বস্তা গ্রামবাসী নিয়ে গিয়েছে। এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার গালাগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আবুল খায়েরের বাড়ির পেছনে একটি গর্তে চালগুলো লুকিয়ে রাখা ছিল । ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছে প্রশাসন। জানাযায়, বুধবার দুপুরে গালাগাঁও গ্রামের আমিন, হারেছ, আশরাফুল, সেলিম, মিমতা উদ্দিন, মাইন উদ্দিন, নরুদ্দিন ও রফিকসহ আরও কয়েকজন ১/২ বস্তা করে চাল নিয়ে যাচ্ছে। এলাকাবাসী আমিন বলেন, “ মেম্বারের বাড়ির পাশে একটি গর্তে ৫০টির মতো চালের বস্তা লুকিয়ে রাখা ছিল অনেকেই সেখান থেকে চালের বস্তা কাড়াকাড়ি করে নিয়ে যাচ্ছে দেখে আমিও দুই বস্তা এনেছি।” এলাকাবাসী জানায়, “আবুল খায়েরের বাড়ির পিছনে গর্তের মধ্যে লতাপাতা দিয়ে লুকিয়ে রাখা অনেকগুলো চালের বস্তা পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা চেয়ারম্যানকে খবর দেয়। এলাকাবাসী আরো জানান, চাউল গুলো ওএমএস ডিলার সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রহমানের হতে পারে। তিনিই এই এলাকার সরকারী চাউলের ডিলার। গালাগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিয়াউল হক জিয়া জানান, আমি খোঁজ নিয়ে জানতে পারি অনেকেই ওই চালের বস্তা কাড়াকাড়ি করে নিয়ে গেছে।” তিনি জানান, “চালগুলো খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ ১০ টাকা কেজির চাল। সরকার চালের ব্যাপারে কঠোর হওয়ায় কেউ হয়তো এখানে লুকিয়ে রেখেছে।” গালাগাঁও ইউনিয়নের ডিলার আব্দুর রহমান তালুকদার চাউলের বিষয়ে জানেননা বলে জানান। ইউপি সদস্য আবুল খায়ের বলেন, চালগুলো কার, তিনি তা জানেন না। তারাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চিত্রা শিকারী বলেন, “এলাকাবাসীর চাল কাড়াকাড়ি করে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি আমি শুনেছি। তদন্ত করে দেখা হবে এই চাল কোথা থেকে এসেছে এবং এই ইউনিয়নে কোন ভুয়া কার্ডধারী রয়েছে কিনা, থাকলে সেটা যাচাই-বাছাই করে বাতিল করা হবে।” এ বিষয়ে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের বলেন, পরিত্যাক্ত অবস্থায় ২০ বস্তা চাউল উদ্বার করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ব্রেকিং নিউজঃ