| |

ময়মনসিংহে চিকিৎসকদের সুরক্ষা অনিশ্চিত: বাড়ছে করোনা আক্রান্ত

আপডেটঃ 3:14 pm | April 24, 2020

Ad

মো. মেরাজ উদ্দিন বাপ্পী,  ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহে সেবা দিতে গিয়ে করোনা মোকাবেলায় কর্মরত ডাক্তার ও নার্সদের প্রাণঘাতি ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে দাায়িত্বপালন করতে গিয়ে বিভাগে ২০ জন চিকিৎসক, ১৪ জন নার্সসহ চিকিৎসা সেবা সংশ্লিষ্ট ৭৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

সম্প্রতি এ হাসপাতালে ৬ জন চিকিৎসকসহ করোনা পজিটিভ হয়েছেন ১৯ জন। আরও অনেকে নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয়েছে ল্যাবে। আক্রান্তদের সংশ্লিষ্ট ছিলেন এমন চিকিৎসক নার্সসহ ৬৯ জন আছেন কোয়ারেন্টাইনে। একসাথে এতো স্বাস্থ্যসেবী আক্রান্ত ও কোয়ারেন্টাইনে চলে যাওয়ায় মেডিসিন ও শিশু বিভাগের দুটি ওর্য়াড, ডায়ালাইসিস ও আইসিইউ ইউনিটের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

আক্রান্ত চিকিৎসকরা বলছেন, সরবরাহ করা নিম্নমানের পিপিই ও মাস্কে নিরাপত্তা নিশ্চিত হচ্ছে না। আর জীবনবাজি রেখে যারা কাজ করছেন তারাও রয়েছেন ঝুঁকিতে। যে গাইডলাইন অনুযায়ী পিপিই বানানোর কথা তা বানানো হয়নি। মাস্কও এন-৯৫ না। দ্রুত চিকিৎসক-নার্সসহ সংশ্লিষ্টদের নিরাপত্তা নিশ্চিত, মান সম্মত পিপিই এবং মাস্ক সরবরাহ করলে চিকিৎসা দেয়ার মতো ডাক্তার পাওয়া যাবে কিনা সন্দেহ আক্রান্ত চিকিৎসকদের।

মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক জানান, করোনার পরিচিত উপসর্গ সম্পর্কে দায়িত্বরত চিকিৎসককে অবহিত না করেই হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে রোগীরা। তাই অসচেতনভাবে রোগীর সংস্পর্শে গিয়ে ঝুঁকিতে পড়ছেন চিকিৎসকসহ অন্যরা। এ ছাড়া করোনা প্রতিরোধক যেসব ব্যক্তিগত নিরাপত্তা সামগ্রী (পিপিই) দেয়া হচ্ছে সেগুলো কার্যকর ও পর্যাপ্ত নয়।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দীন আহমেদ বলেন, যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে চিকিৎসা দেয়ার মতো ডাক্তার ১৫-২০ দিন পর আর পাওয়া যাবে কিনা সন্দেহ। ময়মনসিংহ বিভাগে ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত ২০ জন চিকিৎসক, ১৪ জন নার্সসহ চিকিৎসা সেবা সংশ্লিষ্ট ৭৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক।

ব্রেকিং নিউজঃ