| |

আমরা সেবক, আমরা মৃত্যুঞ্জয়ী, সেবা পরম ব্রত,

আপডেটঃ 4:58 pm | April 26, 2020

Ad

 

যুগে যুগে মানুষের সেবায় কত সেবক নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন তার হিসেব নেই। এরকম দূর্যোগময় পরিবেশে,পথে ঘাটে ভাইরাস মারিয়ে, করোনা ওয়ার্ডের সামনে। করোনা আক্রান্ত রোগিদের জন্য,পথ্য ও প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে এসেছেন আমাদের সহযোদ্ধা এক ভাই।
এসব সেবার কোন হিসেব হয়না। এসব ভালোবাসার পরিমাপ হয়না, দেশের যে কোন দুর্যোগে মুহুর্তে মানুষের সেবায় ঝাপিয়ে পরা সেবকগন কোন প্রতিদান চায় না। চায় শুধু ভালোবাসা।
দূর্যোগ প্রবন এই দেশে, বন্যা, খরা, জলোচ্ছ্বাস, যে কোন দুর্যোগে সেচ্ছাসেবকদের ভুমিকা অপরিসীম। আমরা তাই করি ভাই যখন যা চাহে এমন যা, করি শত্রুর সাথে গলাগলি ধরি মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা, আমরা উন্মাদ আমরা ঝঞ্ঝা, করোনায় মৃত মানুষের লাশ সমাহিত করার যখন লোক পাওয়া যাচ্ছিলোনা, তখন সেচ্ছাসেবক যোদ্ধারাই কিন্তু এগিয়ে এসেছেন।
আমাদের নবী হযরত মোহাম্মদ( সঃ) সেচ্ছায় সেবাদান করেছেন, তিনি নিজে খাবারের বোঝা মাথায় নিয়ে বৃদ্ধের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন, মাটির ঝুড়ি নিজ কাঁধে করে পরিখা খনন কাজে অংশ নিয়েছেন।আমাদের সেচ্ছাসেবীদের প্রধান আইডল হলেন হযরত মোহাম্মদ( সঃ)।
সেচ্ছায় সেবা দান করা মোটেও সহজ কাজ নয়, দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের পর সভ্যতা ফিরিয়ে আনতে, মানুষকে বাঁচাতে, সেচ্ছাসেবীরা যে গুরু দায়িত্ব পালন করেছেন, তা ইতিহাসে স্বর্ণাঅক্ষরে লেখা রয়েছে।
দেশের সকল সেচ্ছাসেবী আমার ভাই/ বোন। আমার কোন ভাইয়ের কষ্ট হলে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটে, আমরা কেহ নির্ধারিত দায়িত্ব পালন করার জন্য কাজ করছি না,এ যুদ্ধে নামার যদি কোন অাকাঙ্খা থেকে থাকে সেটা একমাত্র মানুষের ভালোবাসা,মানুষের সেবা করা।
আমরা আসলেই উন্মাদ, উন্মাদ না হলে রানা প্লাজার ধ্বংস স্তুপে, মানুষ কে বাঁচাতে প্রথম সেচ্ছা সেবকরাই ঝাপিয়ে পরে। উদ্ধার কার্যেঅংশ নিয়ে নিজেদের জিবন পর্যন্ত বিলিয়ে দেয়।
৭১ সালে মুক্তি যোদ্ধারা দেশকে মুক্ত করার জন্য জিবন বাজি রেখেছিলেন, প্রত্যেক মুক্তি যোদ্ধা একেকজন সেচ্ছাসেবক।
১৮৮১ক্লারা বার্টন এই মানুষের সেবা করার জন্যই রেড ক্রস প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৬০ সালে কিউবার বিপ্লবী যুদ্ধ শেষে চে গুয়েভারা সেচ্ছাসেবীদের নিয়ে মানুষের সেবায় নেমে পরেন। মাদার তেরেসার কথা নাইবা বললাম।
হে আমরা সেবক, আমরা মৃত্যুঞ্জয়ী, ভালোবাসা দিয়ে বিশ্বকে জয় করতে জানি….
জয় বাংলা,
“আল্লাহ সর্বশক্তিমান”
শেখ খাইরুল ইসলাম ঈশান…..
কুর্মিটোলা হসপিটাল,
করোনা ওয়ার্ড

ব্রেকিং নিউজঃ