| |

অাব্দুল কদ্দুছ ফাউন্ডেশন ও জাগ্রত ময়মনসিংহের উদ্যোগে করোনাকালীন কর্মহীনদের মাঝে পবিত্র রমজানে খাদ্য উপহার প্রদান

আপডেটঃ ১০:৫১ অপরাহ্ণ | মে ০১, ২০২০

Ad

নাজমুল হুদা মানিক :” সমাজ উন্নয়নে সদা জাগ্রত “এই লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে গঠিত অাব্দুল কদ্দুছ ফাউন্ডেশন ও “ময়মনসিংহ ও ময়মনসিংহবাসীর উন্নয়নে সদা জাগ্রত ” স্বেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠন জাগ্রত ময়মনসিংহ এর যৌথ উদ্যোগে গতকাল ৩০-০৪-২০২০ রোজ বৃহস্পতিবার বিকেলে ময়মনসিংহ নগরীর বিভিন্ন এলাকায় করোনা ভাইরাসজনিত মহামারীর কারণে কর্মহীন নিম্নবিত্ত, হতদরিদ্র,অসহায় ভ্রাম্যমান পথচারী,মানসিক বিকারগ্রস্ত ভবগুরে ও সাময়িক অভাবগ্রস্ত রোজাদার তিন শধাধিক মানুষের মাঝে রান্না করা খাদ্য উপহার বিতরণ করা হয়।ময়মনসিংহস্থ অাব্দুল কদ্দুছ ফাউন্ডেশনের মুখ্য সমন্বয়ক ও জাগ্রত ময়মনসিংহ পরিবারের সক্রিয় সদস্য রনি রাসেল ও জাগ্রত ময়মনসিংহ পরিবারের অন্যতম সদস্য সুমন চন্দ্র ঘোষ মোটড়সাইকেলে ঘুরে ঘুরে ও জাগ্রত ময়মনসিংহের স্বেচ্ছাসেবী সদস্যগণের মাধ্যমে হোমমেইড স্বাস্থ্যসম্মত খাবার বিতরণ করেন।
সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বশেষ নির্দেশনা মোতাবেক সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি মেনে বৈশ্বিক মহামারী করোনাকালীন দুর্যোগে মহাপবিত্র রমজান মাসে রোজাদার এবং সাময়িক অভাবগ্রস্ত মুচি,
রিক্সাচালক ও ভ্রাম্যমান হকারদের মাঝে খাদ্য উপহার বিতরণ করা হয়।অাব্দুল কদ্দুছ ফাউন্ডেশনের মুখ্য সমন্বয়ক,রেডিও ১৯ এর প্রধান নির্বাহী ও জাগ্রত ময়মনসিংহ পরিবারের সদস্য রনি রাসেল বলেন, “বিবেকের তাড়নায় সামাজিক দায়বদ্ধতার কারণেই করোনা ভাইরাসজনিত মহামারীর সময় এই পবিত্র রমজান মাসে অামরা হতদরিদ্র এবং সাময়িক অভাবগ্রস্ত এসকল মানুষের দোড়ঘোড়ায় খাদ্য উপহার পৌছে দেওয়ার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করছি”।
উল্লেখ্য ইতিপূর্বে অাব্দুল কদ্দুছ ফাউন্ডেশন ও জাগ্রত ময়মনসিংহ পরিবারের উদ্যোগে ময়মনসিংহ অঞ্চলে “খাদ্য ও অর্থসহায়তা প্রদান করা হয়েছে সাময়িক বিপদগ্রস্ত মানুষের সামাজিক সম্মান অক্ষুন্ন রেখে।
অাব্দুল কুদ্দুছ ফাউন্ডেশন ও জাগ্রত ময়মনসিংহের মানবিক ও সামাজিক কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন সচেতন ময়মনসিংহবাসী।

ব্রেকিং নিউজঃ