| |

খোলা আকাশের নীচে থাকতে হবে না দুটি ভিক্ষুক পরিবারকে

আপডেটঃ 9:45 am | May 14, 2020

Ad
আর খোলা আকাশের নীচে থাকতে হবে না দুটি ভিক্ষুক পরিবারকে
গত ৫ মে তারিখের আকস্মিক ঝড়ের আঘাতে লন্ডভন্ড হয় দুটি প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক পরিবারের ঘর। মাথা গুঁজার ঠাঁই ভিটেতে থাকা ছোট্ট টিন শেডের ঘর ঝড়ের তান্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে যাওয়ায় দিবারাত্রি কাটে খোলা আকাশের নিচে। কষ্টে ভোগা দুই ভিক্ষুকের একজন হলেন বড়হিত ইউনিয়নের পাইকুড়া (রংপুর) গ্রামের বাসিন্দা মো. আলী হোসেন (৬০)। জন্মান্ধ আলী হোসেনের জীবন চলে ভিক্ষাবৃত্তি করে।
অন্যজন হলেন- পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দত্তপাড়া গ্রামের শারীরিক প্রতিবন্ধী নুরুল ইসলামের (৫৫)। শারীরিক প্রতিবন্ধী নুরুল ইসলাম ভিক্ষাবৃত্তি করে জীবন চালান। তার স্ত্রী মিনা আক্তার ভিক্ষা করেন।
ঝড়ে দুই ভিক্ষুকের জীর্ণ ঘরগুলো লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে পরিবার দুটি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এমন খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশে বুধবার রাতে দুটি বাড়িতে গিয়ে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়। একই সাথে দুটি ভিক্ষুক পরিবারের জন্য দুই বান্ডিল করে ঢেউটিন ও গৃহ মেরামত বাবদ ৬ হাজার করে টাকা বৃহস্পতিবার প্রদান করা হবে।
এসময় সাথে ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।

ব্রেকিং নিউজঃ