| |

ফুলপুরে রামভদ্রপুর ইউনিয়নে বিএনপির সভাপতি সম্পাদকসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীর আওয়ামী লীগে যোগদান

আপডেটঃ 8:12 pm | February 27, 2016

Ad

ফুলপুর প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ফুলপুরে বিপুল সংখ্যক বিএনপি নেতাকর্মীর হাতে আওয়ামী লীগের নৌকার বৈঠা! ইউপি নির্বাচনে কাঙ্খিত প্রার্থীর পক্ষে মনোনয়ন না পেয়ে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ এনে রাগান্বিত, দুঃখিত ও ক্ষুব্ধ অবস্থায় সিদ্ধান্ত নিয়ে উপজেলার রামভদ্রপুর ইউনিয়ন বিএনপিতে এ ঘটনা ঘটে। রামভদ্রপুর ইউনিয়ন  বিএনপির সভাপতি এনামুল কবির বাবুল মাস্টার, সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক ও যুবদল নেতা খালেদ মোশাররফ সোহাগের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে বিপুল সংখ্যক বিএনপি নেতাকর্মী স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের হাতে ফুলের নৌকা দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তারা আওয়ামী লীগে যোগদান করেন।
জানা যায়, তৃণমূল বিএনপির ব্যাপক সমর্থন নিয়ে তারা খালেদ মোশাররফ সোহাগের জন্য ইউপি চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চেয়েছিলেন। মনোনয়ন না পাওয়ায় ক্ষোভে ও দুঃখে বহুদিনের লালিত দল বিএনপি ত্যাগ করে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বক্তব্য রাখেন ও আওয়ামী লীগে যোগদান করেন।  উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব এম এ হাকিম সরকারের সভাপতিত্বে ফুলপুর ভাষা সৈনিক শামছুল হক চত্বরে অনুষ্ঠিত যোগদান অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক হাবিবুর রহমান, যুগ্ম আহ্বায়ক মিস্টার শশধর সেন, সাবেক ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি আতাউল করিম রাসেল, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি খলিলুর রহমান, গ্রামাউস পরিচালক আব্দুল খালেক, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি মনিরুল হাসান টিটু, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বাদশা আলমগীর, রামভদ্রপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, ছাত্রলীগ সভাপতি দেবাশীষ তালুকদার শুভ, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, বিএনপি থেকে পদত্যাগকারী সদ্য আওয়ামী লীগে যোগদানকারী নেতা এনামুল কবির বাবুল মাস্টার, শফিকুল ইসলাম শফিক, খালেদ মোশাররফ সোহাগ, স্বপন প্রফেসর প্রমুখ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। পদত্যাগকারী বিএনপি নেতা এনামুল কবির বাবুল অভিযোগ করে বলেন, ইউনিয়ন বিএনপির ত্যাগী নেতা খালেদ মোশাররফ সোহাগকে মনোনয়ন দেয়ার কথা বলে তাদের কাছ থেকে দরখাত নেয়া হয়। পরে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা মনোনয়ন বাণিজ্য করে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য শাহ শহীদ সারোয়ার ২নং রামভদ্রপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান রোকনুজ্জামান রোকনকে মনোনয়ন দেন। স্থানীয় দলীয় নেতা কর্মীরা এর প্রতিবাদে গণ পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেয়। সেই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিকভাবে তারা আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। যোগদান অনুষ্ঠানে বাবুল মাস্টার বলেন, যেসব নেতার কোন বুক পিঠ নেই তাদের সাথে আর রাজনীতি নয়। এদের শুধু বডি আছে, কোন ইঞ্জিন নেই। অনুষ্ঠানের সভাপতি এম এ হাকিম সরকার ও ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান যোগদানকারীদের স্বাগত: জানিয়ে, তাদের সুখে দুঃখে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে তারা শাহ শহীদ সারোয়ারের উদ্দেশে বলেন, সদ্য আওয়ামী লীগে যোগদানকারীদের প্রতি কোন প্রকার রক্ত চক্ষু নিক্ষেপ করবেন না। করলে জনগণ এর জবাব দিবে। সবশেষে আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে এগিয়ে নেয়ার ও সঙ্গী হিসেবে একযোগে কাজ করার লক্ষ্যে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা সদ্য যোগদানকারীদের হাতে নৌকার বৈঠা তুলে দেন।

ব্রেকিং নিউজঃ