| |

জামালপুরে টানা বর্ষণে যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রসহ অন্যন্য নদ-নদীর পানি বাড়ছে দ্রুত গতিতে প্লাবিত হচ্ছে ১৫টিরও বেশি গ্রাম

আপডেটঃ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ | জুন ২৭, ২০২০

Ad

মোঃ রিয়াজুর রহমান লাভলু ঃ ২৭-৬-২০২০
জামালপুর যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে বিপদসীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান।
নদীপাড়ের নিন্মাঞ্চলের ফসলি ক্ষেত, বাড়িঘর, রাস্তাঘাট ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বন্যার পানি প্রবেশ করছে। দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা সদরের কিছু এলাকায় পানি ঢুকে পড়েছে। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে মেলান্দহের মাহমুদপুর টু ইসলামপুরের উলিয়া সড়ক যোগাযোগ।
পানির তীব্র স্রোতে দেওয়ানগঞ্জের মন্ডল বাজার এলাকায় ২০ মিটার সড়ক ভেঙে পড়ায় দেওয়ানগঞ্জ-খোলাবাড়ি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ৬ হাজারেরও বেশি মানুষ। পানিবন্দি মানুষজন নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে দ্বিগবিদিক ছোটাছুটি করছে।
এদিকে ইসলামপুর উপজেলার চিনাডুলি ইউনিয়নের দক্ষিণ চিনাডুলি, দেওয়ান পাড়া, ডেবরাইপ্যাচ, বলিয়াদহ, পশ্চিম বামনা, বেলগাছা ইউনিয়নের কছিমার চর, দেলীপাড়, গুঠাইল, সাপধরী ইউনিয়নের আকন্দপাড়া, পূর্ব চেঙ্গানিয়ারসহ নদীপাড়ের আরো বেশকটি গ্রামের বিস্তির্ণ এলাকায় পানি প্রবেশ করছে।
পানি বাড়ার সাথে সাথে যমুনাপাড়ের বেশক’টি এলাকায় দেখা দিয়েছে নদী ভাঙন। দেওয়ানগঞ্জের চিকাজানী ইউনিয়নের খোলাবাড়ি, বরখাল ও মাদারগঞ্জের জমথলে যমুনা ভাঙছে বাড়িঘর, গাছপালা ও ফসলি জমি।
জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাইদ বলেন, নদী ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে। ভাঙন রোধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এরই মধ্য বন্যা দেখা দিয়েছে। যমুনায় খুব দ্রুত গতিতে পানি বাড়ছে। সেই সাথে বহ্মপুত্রসহ অন্যান্য নদ-নদীরও পানি বাড়ছে। বন্যা মোকাবেলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মীরা প্রস্তুত রয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ