| |

বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চ ডুবির ঘটনায় নিহত ৩২ উদ্বার কাজ চলছে

আপডেটঃ 5:25 pm | June 29, 2020

Ad

স্টাফ রিপোর্টার ॥ লঞ্চ ডুবির ঘটনায় রাজধানীর সদরঘাটে সর্বশেষ সংবাদ পর্যন্ত ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (২৯ জুন) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে প্রথমে ১৬ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়, পরে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলা অভিযানে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ায় ২৫ জনে। নিখোঁজদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড, নৌবাহিনী ও স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীর সদস্যরা। তবে উদ্ধার অভিযানে অংশ নিতে নারায়ণগঞ্জ থেকে রওয়ানা দেয়া বিআইডব্লিউটিএর উদ্ধারকারী জাহাজ ব্রীজের কারনে পৌঁছায়নি। সকালে লঞ্চ ডুবির খবর পাওয়ার পরই জাহাজটি যাত্রা শুরু করে। এদিন সকালে বুড়িগঙ্গা নদীতে ময়ূর-২ লঞ্চের ধাক্কায় ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ রুটের মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ৫০/৬০ জন যাত্রী নিয়ে ডুবে যায়। স্থানীয়রা জানান, সকাল নয়টার দিকে মুন্সিগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা দুই তলা মর্নিং বার্ড লঞ্চটি সদরঘাট কাঠপট্টি ঘাটে ভেড়ানোর আগ মুহূর্তে চাঁদপুরগামী ময়ূর-২ লঞ্চটি ধাক্কা দেয়। এতে সঙ্গে সঙ্গে তুলনামূলক ছোট মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়। রাজধানীর বুড়িগঙ্গা নদীর শ্যামবাজার এলাকায় লঞ্চ ডুবির ঘটনা ঘটেছে। লঞ্চ ডুবির ঘটনায় উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনী সহ স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী। লঞ্চ ডুবির ঘটনায় ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জননেতা এডভোকেট মো: মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল নিহতদের আত্বার মাগফিরাত কামনা ও গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি তিনি লঞ্চ ডুবির ঘটনায় নিহতদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

ব্রেকিং নিউজঃ