| |

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সারাদেশে এক কোটি বৃক্ষের চারা রোপণ কর্মসূচিতে প্রধানমন্ত্রীর বাণী

আপডেটঃ 7:28 pm | July 15, 2020

Ad

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশে এক কোটি বৃক্ষের চারা রোপণ কর্মসূচিতে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন:
“সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে তিন মাসব্যাপী জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযান-২০২০ এর প্রতিপাদ্য ‘মুজিববর্ষের আহ্বান, লাগাই গাছ বাড়াই বন’ অত্যন্ত সময়োপযোগী হয়েছে বলে আমি মনে করি। এ উপলক্ষে আমি সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবে রূপদানের জন্য আওয়ামী লীগ সরকার অন্যান্য কার্যক্রমের পাশাপাশি পরিবেশ সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। পরিবেশ ও প্রতিবেশ সংরক্ষণ, ভূমির ক্ষয়রোধ, দেশের মরুময়তা হ্রাস, কার্বন আধার সৃষ্টি, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা, দারিদ্র্য বিমোচন ও জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় বৃক্ষের ভূমিকা অনস্বীকার্য। বন বিভাগ বৃক্ষহীন ও অবক্ষয়িত বনভূমি, প্রান্তিক ভূমি এবং উপকূলীয় অঞ্চলে বনায়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। তাছাড়া স্থানীয় দরিদ্র নারীসহ সাধারণ জনগণকে উপকারভোগী হিসেবে সম্পৃক্ত করে সামাজিক বনায়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নে বেশ সাফল্য অর্জন করেছে। পরিবারের আয় বৃদ্ধির পাশাপাশি পরিবারকে স্বাবলম্বী করে তোলা, দারিদ্র্য বিমোচন এবং ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য নির্মল পরিবেশ সৃষ্টিতে সামাজিক বনায়ন অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে জনগণের অংশগ্রহণের মাধ্যমে সারাদেশব্যাপী এক কোটি গাছের চারা বিতরণ ও রোপণের ফলে দেশে বৃক্ষাচ্ছাদনের পরিমাণ যেমন ‍বৃদ্ধি পাবে, তেমনি পরিবেশ ও প্রতিবেশ উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখবে।
সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম-আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে, ইনশাআল্লাহ। প্রতিষ্ঠিত হবে জাতির পিতার আজীবন লালিত ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ।
আামি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এক কোটি বৃক্ষের চারা রোপণ কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।

ব্রেকিং নিউজঃ