| |

ভালুকায় খাদ্য গুদাম থেকে চাল কম দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানকে হয়রানীর অভিযোগ

আপডেটঃ ৮:০২ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৫, ২০২০

Ad

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা উপজেলার ২নং মেদুয়ারী ইউনিয়নের একমাত্র জনপ্রিয় মহিলা ইউপি চেয়ারম্যান চাউল কম দেয়ার অভিযোগে রহস্যজনক কারনে ফাঁসানোর কেলেঙ্কারির রেশ কাটতে না কাটতেই এবার ভালুকা উপজেলা পরিষদের বিরুদ্ধে চাউল কেলেঙ্কারির গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। ২৩ জুলাই বৃহস্পতিবার ১০ নং হবিরবাড়ী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ বাচ্চু প্রতি বস্তায় ৩০ কেজি করে ৬৭০ বস্তা মোট ২০ টন চাউল গ্রহণ করেন। লেবার দিয়ে চাউল নামানোর সময় বস্তায় চাউল কম আছে সন্দেহে ডিজিটাল স্কেলে চাউল মেপে দেখা যায় ৩০ কেজি এর স্থলে কোন বস্তায় ২০ কেজি কোনটাই ২৫ কেজি করে চাউল রয়েছে। অতঃপর ইউএনও স্যারকে বিষয়টি অবগত করলে তিনি উপজেলা পরিষদের খাদ্য গোদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ফোন করেন এবং ঘটনাস্থলে দুই জন কর্মকর্তা পাঠান। সেই দুইজন কর্মকর্তার সামনে সবগুলো চাউল মেপে দেখাযায় ৬৭০ বস্তায় মোট ৩৯০ কেজি চাউল কম পাওয়া যায়। ১০নং হবিরবাড়ী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান যদি বিষয়টি খেয়াল করে চাউল না মেপে দেখত তবে হয়ত উনার নামেও পাশেও আজ চোর তকমাটা লাগতো, নিরপরাধ হয়েও ২নং মেদুয়ারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের মত অপরাধী হত। এভাবে যদি ভালুকার উপজেলার প্রতি ইউনিয়নে কম চাউল দেওয়া হয়ে থাকে তবে হিসাব করলে পুকুর চুরির ঘটনা ঘটেবে বলে অনেকের ধারনা। উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে কত কেজি চাউল কম দেওয়া হয়েছে এবং কত টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে তদন্তের মাধ্যমে এটি বের করা প্রয়োজন বলে অভিজ্ঞজন মনে করেন। এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। ভালুকা উপজেলা পরিষদে চাউল চুরির মত এমন কেলেঙ্কারিতে কারা জড়িত, কারা করছে এসব দুনীতির মত জঘন্যতম কাজ। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হলে সমাজের অসহায় গরীবের হক চাউল নিয়ে অন্য কেউ অনিয়ম করার সুযোগ পাবেনা। জানাগেছে, ভালুকা খাদ্য গুদাম থেকে বিভিন্ন ত্রাণের চাউল মাপে কম যায় এমনি ঘটনার অভিযোগ মিলেছে হবিরবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ বাচ্চুর লিখিত অভিযোগে। লিখিত অভিযোগে চেয়ারম্যান তোফায়েল জানান, যেখানে সরকারী বিনির্দেশ রয়েছে প্রতি বস্তায় ৩০.৩৫০ কেজি করে চাউল গুদামে সরবরাহ করতে হবে, সেখানে মিলাররা ৩০.৫৫০ কেজি করে দিয়ে থাকে, এসব চাউল দু‘বছর গুদামজাত থাকলেও ০.২০০ কেজি চাউল কমে যাবার কথা নয়, তবে বুঝতে হবে নিশ্চয়ই গুদামে রক্ষিত চাউলের সঠিক রক্ষনাবেক্ষন হয়নি, এঘটনার সঠিক তদন্ত দাবী করেছেন এলাকাবাসী।

ব্রেকিং নিউজঃ