| |

ধোবাউড়ায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনে ঝড়ো হাওয়া-চলছে লবিং তদবির

আপডেটঃ 8:20 pm | March 05, 2016

Ad

সুলতান মামুন-ধোবাউড়া : ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় ৭টি ইউনিয়নে ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়নের জন্য ব্যাপক তৎপরতা শুরু হয়েছে। তবে প্রত্যেকটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একাধিক সম্ভাব্য প্রার্থী রয়েছে। তারা দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য উপজেলা এবং জেলা পর্যায়ের নেতাদের কাছে ঘুরছেন। যদিও বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা এই নির্বাচনকে দেখছেন বাঁকা চোঁখে। তারপরও তারা থেমে নেই। দলীয় নেতৃবৃন্দ দুটিভাগে বিভক্ত থাকলেও তাদের কাছে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আনাগোনা কোন অংশেই কম নয়। প্রতি ইউনিয়নে বিএনপির প্রিন্স গ্র“প থেকে একজন এবং আফজাল এইচ খান গ্র“প থেকে একজন জন করে শক্তিশালী প্রার্থী থাকায় মাঠ পর্যায়ে বিএনপির অবস্থা অনেকটা ভাল। অন্যদিকে ধোবাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের উপজেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীরা তিন গ্র“পে বিভক্ত হওয়ায় প্রতিটি ইউনিয়নে সম্ভাব্য বিদ্রোহী প্রার্থীর সংখ্যা অনেক বেশি। ইতিমধ্যে ধোবাউড়ায় আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নৌকা প্রতীক পেতে মরিয়া হয়ে লবিং তদবিরে ব্যস্ত সময় পার করছেন। দলীয় নেতৃবৃন্দ যোগ্য প্রার্থী বাছাইয়ে ব্যর্থ হলে  উপজেলার সাতটি ইউনিয়নেই বিদ্রোহী প্রার্থীর ছড়াছড়ি হবে আর ভরাডুবির আশংকা রয়েছে নৌকা প্রতীকের এমনটাই অনুমান করছেন বিশিষ্টজনেরা। ধোবাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আঃ মান্নান আকন্দ ও সাধারণ সম্পাদক প্রিয়তোষ বিশ্বাস বাবুল বলেন, ত্যাগী, যোগ্য ও জনপ্রিয় নেতাকর্মীদেরকেই মনোনয়ন দেয়া হবে।’ অপরদিকে ধোবাউড়ায় বসে নেই জাতীয় পার্টি। তারাও বিভিন্ন ইউনিয়নে শক্তিশালী প্রার্থী বাছাইয়ে তৎপর রয়েছেন। ধোবাউড়া উপজেলার ১নং দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- বর্তমান আওয়ামীলীগ নেতা ফজলুল হক, যুবলীগ নেতা আবু সালেক টিপু, আওয়ামীলীগ নেতা হাশেম শিকদার, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি দুলাল মিয়া। এদের মধ্যে গতবারের ইউপি নির্বাচনে তৃতীয় স্থানে থাকা ফজলুল হক চশমা প্রতীকে পেয়েছিলেন ৩৩৯৬ ভোট আর দুলাল মিয়া দেওয়াল ঘড়ি প্রতীকে পেয়েছিলেন ৩৩৭ ভোট। এই ইউনিয়নে এখন পর্যন্ত ফজলুল হক ও আবু সালেক টিপু নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দৌঁড়ে এগিয়ে রয়েছেন। অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন বর্তমান চেয়ারম্যান গাজীউর রহমান(প্রিন্স গ্র“প), গত নির্বাচনে ২৩২ ভোটে পরাজিত অপর শক্তিশালী প্রার্থী হুমায়ন কবির (আফজাল এইচ খান গ্র“প) ও নতুন মুখ আমিনুল এবং জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী মো: রমজান আলী। ২নং গামারীতলা ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত ওসমান, উপজেলা আওয়ামীলীগ এর আইন বিষয়ক সম্পাদক প্রভাষক উসমান আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আঃ মান্নান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ইকবাল কবির মানিক, আওয়ামীলীগ নেতা আজিজুল হক খান, আনোয়ার হোসেন খান ও আব্দুল হান্নান। অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত সম্ভাব্য প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আ: ওয়াহেদ তালুকদার(প্রিন্স গ্র“প) ও গতবারের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নজির হোসেন(প্রিন্স গ্র“প) ও খোকন খান এবং জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী আব্দুস সামাদ ও মোসলেম উদ্দিন। ৩নং ধোবাউড়া ইউনিয়নের সাবেক শ্রমিক নেতা ও ইউনিয়ন কৃষকলীগের আহ্বায়ক এরশাদুল হক, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান ঈমান, যুবলীগ নেতা  ইউপি চেয়ারম্যান নূরে আলম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মুকুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সাবেক ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন, যুবলীগ নেতা উত্তরণ এম সাংমা ও পল¬ীবিদ্যুৎ সমিতি -৩ এর ধোবাউড়া এলাকা পরিচালক বিজয় বিশ্বাস। অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত সম্ভাব্য প্রার্থী সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান মানিক(আফজাল এইচ খান গ্র“প)  ও নতুন মুখ নয়ন মিয়া(প্রিন্স গ্র“প) এবং লাঙ্গল প্রতীকে সম্ভাব্য প্রার্থী উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মমতাজুর রহমান খান। ৪নং পোড়াকান্দুলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থী সাদির সরকার, যুবলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন দিলু, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বকুল মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা জিন্নত আলী বিশ্বাস, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক আঃ হেকিম ও রেনু মিয়া। অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল হক মঞ্জু(আফজাল গ্র“প) ও গতবারের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বপন তালুকদার। ৫নং গোয়াতলা ইউনিয়নে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম তালুকদার লিঠন, ইউনিয়ন আ্ওয়ামীলীগ সভাপতি সদরুল আমিন তালুকদার কালাম, সাধারণ সম্পাদক স্বপন সরকার, ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন ও আব্দুল মান্নান। অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত সম্ভাব্য প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম টুটন(প্রিন্স গ্র“প) ও সাবেক চেয়ারম্যান গতবারের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শামছুর রশিদ মজনু(আফজাল গ্র“প)। ৬নং ঘোষগাঁও ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সহ সভাপতি গত নির্বাচনে ৪৫(পয়তালি¬শ) ভোটে পরাজিত মো: হারুন অর রশিদ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সভাপতি আঃ করিম, সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর হোসেন ও সাবেক চেয়ারম্যান শামসুল হক । অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ফরিদ আল রাজী কমল(প্রিন্স গ্র“প) ও সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুস শহীদ(আফজাল গ্র“প)। ৭নং বাঘবেড় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে সাবেক ছাত্রনেতা ও বর্তমান জেলা যুবলীগের সদস্য এবং পর পর দুইবারের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আজহারুল ইসলাম খায়রুল, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব আলী খান, শফিকুল ইসলাম, মঞ্জুরুল হক রুবেল, আলী মাসুদ খান স্বপন, বজলুর রশিদ প্রমুখ। অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত সম্ভাব্য প্রার্থী ফরহাদ রব্বানী সুমন (প্রিন্স গ্র“প) ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন মামুন( আফজাল গ্র“প)।

ব্রেকিং নিউজঃ