| |

সাড়ে ৩ কোটি টাকার শুল্ক ফাঁকি : এনবিআরের মামলা

আপডেটঃ 2:22 am | March 07, 2016

Ad

প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকার শুল্ক ফাঁকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে গাজীপুরস্থ মেসার্স গ্যালাক্সি সুয়েটার অ্যান্ড ইয়ার্ন ডাইং লিমিটেড নামক একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এ ব্যাপারে একটি মামলা দায়ের করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

সম্প্রতি এনবিআরের পক্ষে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের একজন সেক্টর স্পেশালিস্ট বাদী হয়ে মামলাটি দায়ে করেন। মামলায় প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জামিলা আক্তার সীমা ও চেয়ারম্যান মো. জহির উদ্দিনসহ ৫ জনকে আসামি করা হয়। এনবিআর সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এনবিআর সূত্রে জানা যায়, মেসার্স গ্যালাক্সি সুয়েটার অ্যান্ড ইয়ার্ন ডাইং লিমিটেড জাল জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে বন্ড সুবিধার আওতায় গার্মেন্টসের ‘পিভিসি রেজিন’ নামক কাঁচামাল আমদানি করে।  পরে এসব কাঁচামাল খোলা বাজারে বিক্রি করে বলে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযোগ আসে।

পরে এনবিআরের ওই অধিদপ্তরের অভিযানে দেখা যায়, প্রাতিষ্ঠানটি বন্ড সুবিধার আওতায় ৯ হাজার ৬৩৭ দশমিক ৯০ মেট্রিকটন কাঁচামাল মজুদ করে রেখেছে বলে তাদের বাৎসরিক আমদানির প্রাপ্যতার শিটে বলা আছে। কিন্তু তারা মূলত ৩২ হাজার ৮৭ দশমিক ৩১৪ মেট্রিকটন কাঁচামাল জমা করেছে বলে অভিযানে পাওয়া যায়। এর মধ্যে ১ হাজার ৭২৩ মেট্রিকটন পিভিসি রেজিন খোলা বাজারে বিক্রি করেছেন।

মূলত ওই প্রতিষ্ঠানটিকে ঢাকা কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট ২৬ জুলাই ২০১৫ হতে ২৫ জুলাই ২০১৬ পর্যন্ত তৈরি পোশাকে ব্যবহার্য এক্সেসরিজ উৎপাদনের জন্য অনুমোদন দিলেও তারা সেটি করেননি। আর তাই বাকি কাঁচামালও বন্ড ফাঁকি দিয়ে খোলা বাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যেই মজুত রাখা হয়েছে বলে প্রতীয়মাণ হয়।

সূত্রটি আরো জানায়, এভাবে জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে সুকৌশলে বন্ড সুবিধা বর্হিভূত কাঁচামাল ইনপুট-আউটপুট কো-এফিসিয়েন্ট (সহগ) সৃষ্টি করে পণ্য খালাসপূর্বক খোলা বাজারে বিক্রির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি মোট ৩ কোটি ৪৫ লাখ ১০ হাজার ৪০৯ টাকার শুল্ক ফাঁকি দিয়েছে বলে প্রমাণিত হয়। এসব অভিযোগগুলো দু’জন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সেক্টর স্পেশালিস্ট পর্যালোচনা করে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় দি কাস্টম অ্যাক্ট, ১৯৬৯ এর সেকশন ১৩ ও ৩২ ধারা এবং বন্ড লাইসেন্স’র প্রদত্ত শর্তসমূহ ও এনবিআরের এ সম্পর্কিত আদেশসমূহ লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে। দায়েরকৃত মামলায় মেসার্স গ্যালাক্সি সুয়েটার অ্যান্ড ইয়ার্ন ডাইং লিমিটেড এর এমডি ও চেয়ারম্যানসহ অন্য আসামিরা হলেন, প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক এবিএম সামছুল হাসান, মো. পারভেজ মাহমুদ এবং কমার্শিয়াল ম্যানেজার মো. নাজমুল হুদা তালুকদার তমাল।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলাটি (নং০৪/২০১৬) দায়ের করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ