| |

মামলা হলেও ধরা পরেনি কেউ বিথী নামে ১৭ মাস বয়সী শিশুটি মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে

আপডেটঃ 9:31 pm | March 14, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পি: ময়মনসিংহের নান্দাইলে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বিথী নামে ১৭ মাস বয়সী শিশুকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলেও। সে এখন  ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের পোষ্ট অপারেটিভ থিয়েটারে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
এদিকে সোমবার দুপুরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের পোষ্ট অপারেটিভ থিয়েটারে গিয়ে দেখা যায় পেটে ছুরি মেরে নাড়িভুঁড়ি বের করে ফেলার পরও ১৭ মাসের শিশু বীথি এখনও বেঁচে আছে। সে এখন  ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের পোষ্ট অপারেটিভ থিয়েটারে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। বিথীর অবস্থা এখনো শঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন কর্তবরত চিকিৎসক।
শিশু সার্জারী বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডা. শাহ আলম তালুকদার বলেন, ছুরি মেরে বিথীর পেটের নাড়িভুঁড়ি বের হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি কয়েকটি ফুটো হয়ে যায়। হৃদপিণ্ড, মুত্রথলি বা কিডনির কোনো তি না হলেও এক সপ্তাহ না গেলে তার প্রকৃত অবস্থা বলা কঠিন। তবে যখন দেখবো বিথীর জ্বর নেই, পেট ফেঁপে যায়নি, খেতে পারে এবং ঠিকমতো মল ত্যাগ হচ্ছে তখনই বলা যাবে বিথীর অবস্থা উন্নতি হচ্ছে।
বিথীর বাবা দ্বীন ইসলাম বারবার কান্না জরিত কন্ঠে বলেন, আমি সরকারের কাছে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানাই।
নান্দাইল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান জানান, মামলায় শাহাজাহানসহ ১১ জনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্ঠা চলছে।
উল্লেখ্য, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে রোববার সকালে নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা গ্রামের শাহজাহানের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা হামলা চালালে দ্বীন ইসলাম দৌড়ে পালিয়ে গেলেও হামলাকারিরা  তার ১৭ মাসের কন্যাশিশু বীথির পেটে ছুরি মেরে এফোঁড়-ওফোঁড় করে দেয়। এতে বিথীর নাড়িভুঁড়ি বেরিয়ে আসে এবং ছুরিটি পেটে আকটে থাকাবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ