| |

ফেইসবুকে অপপ্রচার প্রবীর বসাকের নামে আরও তিন মামলা ঃ ১ দিনের রিমান্ড

আপডেটঃ 7:48 pm | March 24, 2016

Ad

মো: মেরাজ উদ্দিন বাপ্পি: ফেইসবুকের একাধিক আইডির মাধ্যমে ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়রসহ স্বনামধন্য ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কুরুচী, বিভ্রান্তিকর অপপ্রচারের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত প্রবীর বসাককে আদালত একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে। এদিকে গ্রেফতারকৃত প্রবীর বসাকের নামে আরো ৩ ব্যক্তি তাদের নামে ব্যবহৃত ফেইসবুক আইডি পরিবর্তন ও তাঁর নামে থাকা একাধিক আইডি থেকে ফেইসবুকে বিভিন্নজনকে মানহানীকর তথ্য লিপিবদ্ধ করে স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে পৃথক ৩টি মামলা হয়েছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আনিছুর রহমান সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করলে আদালতের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্র্যাট আবেদা সুলতানা দীর্ঘ শুনানীশেষে ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
জানা গেছে, দূর্গাবাড়ী রোডের রাজিব পেপার হাউজের মালিক প্রবীর বসাক গত কয়েকমাস ধরে শহরের স্বনামধন্য বিভিন্ন লোকজনের নামে ফেবইসবুকে সাইবার ক্রামই এর মাধ্যমে আইডি ও নাম পরিবর্তন করে নিজেই নানা লোকের নামে অপপ্রচার করে আসছে।
এদের মধ্যে ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র ইকরামুল হক টিটু, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, জেলা জজকোর্টের জিপি এডভোকেট আনোয়ার হোসেন খান ও বাকৃবির সাবেক ভিসি প্রফেসর ডঃ আনোয়ারুল ইসলাম ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক সোহেল গনিসহ একাধিক সম্ভ্রান্ত পরিবারের সদস্যদের নামে কুরুচীপূর্ণ, মানহানীকর লেখা নিজেই লিখে পোষ্ট করে।
সুত্র মতে, প্রবীর বসাক উল্লেখিত স্ট্যাটাসগুলো তাঁর নামে খোলা ১০/১২টি ফেইসবুকে প্রথমে নিজে লাইক বা শেয়ার করে আসছে। পরে একাধিক ফেইবুকধারীদেরকে অবহিত করে ব্যাপক প্রচার করে সম্মানহানীসহ ময়মনসিংহ শহরে আলোচনার ঝড় তুলে। এ ঘটনায় সোহেল গনি বাদী হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০১৩ এর ৫৭ ধারায় মামলা নং ৪২ তাং ১৪/৩/২০১৬ দায়ের করে।
মামলাটি গুরুত্ব বিবেচনায় পুলিশ সুপারের নির্দেশে ডিবি তদন্ত শুরু করে। ডিবি আইটি বিশেষজ্ঞ এস আই মফিজুল ইসলাম তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার এবং ফেইসবুকে পোষ্ট করা বিভিন্ন কমান্ড পর্যালোচনা করে প্রবীর বসাককে চিহিৃত নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত প্রবীর পুলিশের কাছে তাঁর অপরাধের কথা স্বিকার করেছে। পুলিশের আইটি বিভাগ তাঁর নামে কমপে ১১টি ফেইসবুক আইডি পাওয়ার কথা জানায়। গ্রেফতারকৃত প্রবীর বসাককে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আনিছুর রহমান আদালতে প্রেরণ করলে বৃহস্পতিবার শুনানীশেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।
এদিকে শহরের পুলিশ লাইন উত্তরার আশরাফুল মোমেন পারভেজ,৭৪ নাহা রোডের নুর মোহাম্মদ মিজান ও ময়মনসিংহ পৌরসভার প্রশাসনিক কর্মকর্তা মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম বুধবার পৃথক তথ্য ও  যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে ৩টি মামলা করেন। যার নং ৮৭, ৮৮ ও ৮৯ তাং ২৩/০৩/২০১৬ইং।

ব্রেকিং নিউজঃ