| |

দেশে ৯০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত

আপডেটঃ ৩:৩৯ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৭, ২০১৬

Ad

আলোকিত ময়মনসিংহ : বর্তমানে দেশে ৯০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। প্রতিবছর ১ লাখ মানুষ নতুন করে যুক্ত হচ্ছে এ তালিকায়।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের উদ্যোগে আয়োজিত ‘সৃশৃঙ্খল জীবন যাপন করুন, ডায়াবেটিসকে জয় করুন’, এ প্রতিপাদ্য বিষয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় এ তথ্য জানানো হয়।

বক্তারা বলেছেন, গত বছর শুধু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে সারা বিশ্বে দেড় বিলিয়ন মানুষ মারা গেছে, যার ৮০ শতাংশই নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশের মানুষ। বিশ্বে সাড়ে তিন মিলিয়ন মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। আগামী ২০ বছরে যদি এভাবে লাগামহীন জীবনযাপন চলতে থাকে, তা হলে এ সংখ্যা দ্বিগুণ বা তার বেশি হবে।

ডায়াবেটিসের ফলে মানবদেহের কর্মক্ষমতা লোপ পেয়ে শূন্যের কোটায় নেমে যায়, এমন ভয়াবহ তথ্য উল্লেখ করে তারা বলেন, ডায়াবেটিসের কারণে মানবদেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের কর্মদক্ষতা হ্রাস পেয়ে হার্ট অ্যাটাক, কিডনি ফেইলিউর, অন্ধত্ব, পায়ে পচন, এমনকি পা কেটে ফেলতে হয়।

স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনের ওপর জোর দিয়ে আলোচকরা বলেছেন, স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের মাধ্যমে একদিকে যেমন ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করা সম্ভব, তেমনি যাদের ডায়াবেটিস আছে তারা স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণের মাধ্যমে এ রোগ নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারে।

পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর মুজাহেরুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাডাসের ভাইস প্রসিডেন্ট মেজর জেনারেল (অব.) অধ্যাপক এ আর খান বলেছেন, নগরায়নের ফলে দিনে দিনে ডায়াবেটিস রোগীর সংখা বাড়ছে। গ্রামের মানুষ হেঁটে বেড়ায়, শাকসবজি বেশি খায়, আর শহরের মানুষের গাড়িতে চড়ে বেড়ায়, হেঁটে বেড়ানোর জায়গা নেই, শহরের মানুষ মাংস আর বিরিয়ানি খায়। এসব কারণে শহরের মানুষের ডায়াবেটিস বেড়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, আমাদের খাদ্যাভ্যাস এবং শারীরিক পরিশ্রম, নিয়মিত শরীর চর্চা ও ব্যয়ামকে নিয়মিত জীবনযাত্রার সঙ্গে অবশ্যই সম্পৃক্ত করতে হবে এবং সেই সঙ্গে স্থুলতা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ